৯ মাসে ২০৯ সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার

শুক্রবার, অক্টোবর ২, ২০২০,২:৫০ অপরাহ্ণ
0
67

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত ৯ মাসে ২০৯ জন সাংবাদিক পেশাগত কাজ করতে গিয়ে বিভিন্নভাবে নির্যাতন ও হয়রানির শিকার হয়েছেন। আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) পরিচালিত এক জরিপে এই তথ্য উঠে এসেছে। বৃহস্পতিবার এই তথ্য জানানো হয় আসকের পাঠানো এই বিজ্ঞপ্তিতে।

জরিপে দেখা যায়, নির্যাতনের শিকার ২০৯ জন সাংবাদিকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৮১ জন সাংবাদিক সংবাদ প্রকাশ করায় হুমকি, হামলা, মামলার শিকার হয়েছেন। আইন শৃঙ্খলা রাক্ষা বাহিনী কর্তৃক নির্যাতন ও হয়রানির শিকার হয়েছেন ৩৫ জন সাংবাদিক। এই নয় মাসে সরকারি কর্মচারী, মাদক ব্যবসায়ী, ইউএনও, সন্ত্রাসী ও অজ্ঞাত পরিচয়ে মোবাইল ফোনে মৃত্যুর হুমকি পেয়েছেন ২৩ জন সাংবাদিক। সন্ত্রাসী কর্তৃক নির্যাতন, হামলা ও হয়রানির শিকার হয়েছেন ২৫ জন। জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত সময়ে ক্ষমতাশীল দল আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন কর্তৃক ১৯ জন সাংবাদিক হামলা, হুমকি, হয়রানি ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বলে ওই জরিপে বলা হয়। এছাড়াও বিএনপি কর্তৃক একজন সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার হন বলে জরিপে উল্লেখ করা হয়।

এ ছাড়া সরকারি কর্মচারী ও কর্মকর্তা কর্তৃক লাঞ্চিত হন ৮ জন, সিটি নির্বাচনে ও নির্বাচন পরবর্তী সময়ে সহিংসতার শিকার হন ৭ জন, নিখোঁজ হন একজন, হত্যার শিকার হন একজন এবং অন্যান্য নির্যাতনের শিকার হন ৮ জন। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের ওই জরিপে দুটি সাংবাদিক নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরা হয়।

এর মধ্যে একটিতে কুড়িগ্রামে আরিফুল ইসলাম নামের এক সাংবাদিককে বাড়ি থেকে তুলে এনে ভ্রাম্যমাণ আদালতের দেওয়া এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং বিজয় টিভির ধামরাই প্রতিনিধি জুলহাস উদ্দিনকে গলা কেটে হত্যার ঘটনা জরিপে তুলে ধরা হয়।

দেশের প্রথম সারির কয়েকটি দৈনিক ও অনলাইন সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্য ও আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নিজস্ব সংগৃহীত তথ্য নিয়ে এই জরিপ পারিচালনা করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে