১৭ অক্টোবর থেকে কিন্ডারগার্টেন না খুললে অনশনের হুঁশিয়ারি

সোমবার, অক্টোবর ১২, ২০২০,১১:৪২ পূর্বাহ্ণ
0
30

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে দেশের সব কিন্ডারগার্টেন স্কুল খুলে দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। এছাড়া শিক্ষক-কর্মচারীরা রাজপথে নেমে আন্দোলন করবে। রবিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে কিন্ডারগার্টেন ও সমমান স্কুল রক্ষা জাতীয় কমিটি এমন দাবিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

বলা হয়েছে, করোনা মহামারিতে সারাদেশে প্রায় ৪০ হাজার কিন্ডারগার্টেনে কর্মরত প্রায় ৮ লাখ শিক্ষক-কর্মচারী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তাদের জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে আর্থিক সহায়তা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদ্যালয় খুলে দেওয়া এবং স্ব স্ব বিদ্যালয়ে বার্ষিক পরীক্ষা নিয়ে মূল্যায়ন করার দাবি জানানো হয়েছে।

সংগঠনের নেতারা বলেন, বর্তমানে দেশের সব কিছু স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে। কওমি মাদরাসা খুলে দেওয়া হয়েছে। সেখানে সংক্রমণের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তার সঙ্গে ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিন্ডারগার্টেন স্কুল খুলতে সমস্যা কোথায়?

দেশে এখন করোনা সংক্রমণের মাত্রাও অন্য সময়ের তুলনায় অনেক সহনীয়। তাই ১৭ অক্টোবরের মধ্যে স্কুল খুলে দেওয়ার দাবি জানান তারা। নতুবা এ দাবি বাস্তবায়নে নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে মানববন্ধন, যৌথ স্মারকলিপি প্রদান ও আমরণ অনশন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

কিন্ডারগার্টেন স্কুল দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় শিক্ষক-কর্মচারীদের দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। বর্তমানে রাস্তায় নেমে আন্দোলন করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই বলে জানান তারা।

এ সময় কিন্ডারগার্টেন স্কুলের ২১টি সংগঠন যৌথভাগে গঠিত জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক মো. মিজানুর রহমান সরকারের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সদস্য সচিব জিএম কবির রানা।

কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী মো. আবদুল অদুদের উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা নুরুজ্জামান কায়েস, সদস্য ইস্কান্দার আলী হাওলাদার, উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম খন্দকার, যুগ্ম আহ্বায়ক এম এইচ বাদল, হাবীবুর রহমান, লায়ন তাজুল ইসলাম, উপদেষ্টা আহসান সিদ্দিকী প্রমুখ। 

কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী মোহাম্মদ আবদুল অদুদের উপস্থাপনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা নুরুজ্জামান কায়েস, উপদেষ্টা বীরমুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম খন্দকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা জি এম, যুগ্ম আহবায়ক এম এইচ বাদল, লায়ন তাজুল ইসলাম, উপদেষ্টা আহসান সিদ্দিকী, এম এ ছিদ্দিক মিয়া, ফারুক আহমেদ, সদস্য দৌলত দায়েন রাফে (রানা), আবদুল হাই, সফিকুল ইসলাম স্বপন, শেখ মিজানুর রহমান, নাজমা বেগম, হারুনুর রশীদ, নিয়াজ আহমেদ, শান্তা ফারজানা, তাকবীর আহমেদ, আলমগীর হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, এম মান্নান মনির ও মো. আলাউদ্দিন প্রমুখ।

এছাড়া তৌহিদুল ইসলাম মাতীন, ডা. সিরাজুল আলম ভূইয়া, জয়নাল আবেদীন জয়, জহিরুল ইসলাম খান, মো. হাসান আলী, এ.এস.এম তুহিন ও আল মামুন প্রমুখসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে