স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবহেলা থাকলেই কঠোর ব্যবস্থা : শিক্ষামন্ত্রী

সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২১,৭:২৮ অপরাহ্ণ
0
2

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে অবহেলা থাকলেই কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।  তিনি গতকাল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা জানান।

তিনি ঢাকার আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, উদয়ন উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল অ্যন্ড কলেজ ও কলাবাগান লেক সার্কাস স্কুল পরিদর্শন করেন। এ সময় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শনে গিয়ে মন্ত্রী সাংবাদিকের বলেন, শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানের পৌঁছে অভিভাবকরা যদি বাইরে ভিড় করেন, তাহলে সমস্যার কারণ হবে।  শিক্ষার্থীদের দিয়ে যদি চলে যেতে পারেন তাহলে ভালো, আর যদি চলে যেতে না পারেন, তাহলে স্বাস্থ্যবিধি মানবেন।

স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজ, এলাকার গণ্যমান্য লোকদের তদারকি করার প্রতি আহ্বান জানান মন্ত্রী। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অভিভাবকরা যাতে ভিড় না করেন।

সংক্রমণ বাড়লে শিক্ষার্থীদের শ্রেণি কক্ষে না নিয়ে অনলাইনে পাঠদান এবং অ্যাসাইনমেন্টে ফিরিয়ে নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে মন্ত্রী বলেন, যদি কোনও আশঙ্কা দেখা যায় সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার, সে ক্ষেত্রে তো সুযোগ রয়েছে শ্রেণি কক্ষে না রাখার।

মন্ত্রী বলেন, সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলেছে, সবাইকে মনে রাখতে হবে এখন শুধু করোনা নয়, এখন ডেঙ্গুরও প্রকোপ চলছে। শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সকাল থেকেই থাকবে। এই সময় ডেঙ্গু মশা কামড়ানোর আশংকা থাকে। সে কারণে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পুরো হাতা জামা, ফুল প্যান্ট বা পায়জামা পরে স্কুলে আসতে।

প্রত্যেক জেলায় একটি করে কন্টোল রুম আছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কেউ যদি বলেন কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সমস্যা আছে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, ১২ বছরের ওপরে করোনার টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। টিকা পাওয়া সাপেক্ষে শুরু হবে।

পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষা নেওয়ার পরিস্থিতি হলে অবশ্যই পরীক্ষা নেয়া হবে। শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার যে গ্যাপ তৈরি হয়েছে তা এসেস করতে হবে। শিক্ষার্থীরা ক্লাশে এসেছে, এখন সরকার এসেস করতে পারবে। এসেসমেন্টর পর বুঝা যাবে চলমান শিক্ষাবর্ষকে বাড়িয়ে নেয়া হবে নাকি সরকার সামনের শিক্ষাবর্ষে প্রতিকারমূলক ক্লাস করাবে। সরকারের পুরো পরিকল্পনা রয়েছে। শিক্ষা পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে