সৌদিতে লাঠির আঘাতে প্রবাসি বাংলাদেশির মৃত্যু,ডোবা থেকে লাশ উদ্ধার

বুধবার, সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯,৭:২৮ পূর্বাহ্ণ
0
17

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সৌদি আরবের মক্কায় ওয়াদি রেহেজান নামক জায়গায় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে লাঠির আঘাতে এক বাংলাদেশির হাতে অপর এক বাংলাদেশি মৃত্যু হয়েছে। রোববার বিকেলে স্থানীয় পুলিশ ওই এলাকার একটি ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহতের স্বজনরা জানিয়েছে, পবিত্র মক্কা নগরী থেকে প্রায় ৮০-কিলোমিটার দূরে ওয়াদি রেহেজান নামক এলাকায় সৌদি মালিকের কৃষি খামারে একই ইউনিয়নের ৭/৮ জন কৃষি শ্রমিকের কাজ করতেন। ৩০ আগস্ট শুক্রবার কাজ শেষে নিজ বাসায় তাদের কয়েকজন মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতি হলে একজন লাঠি দিয়ে মুহাম্মদ জসিম উদ্দিনের মাথায় আঘাত করলে ঘটনা স্থলে মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন-(৪৪) নামের এক প্রবাসী বাংলাদেশি মৃত্যু হয়।

পরে নিহত প্রবাসীর মরদেহ পাশের ডোবায় পেলে তারা পালিয়ে যায়। তিন দিন পর তাদের মধ্যে থেকে অন্য একজনের গোপন সংবাদের ভিত্তিতে স্থানীয় সৌদি পুলিশকে খবর দিলে স্থানীয় পুলিশ এসে ডোবা থেকে মুহাম্মদ জসিম উদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে নিহতের মরদেহ বর্তমানে মক্কা কিং আব্দুল আজিজ হসপিটালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ২ জন প্রবাসী বাংলাদেশীকে আটক করে স্থানীয় পুলিশ। তিনি চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলাধীন চরম্বা ইউনিয়নের মোজাহার সওদাগরের পুত্র। নিহত মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন মাত্র আড়াই মাস আগে সৌদি আরবে এসেছেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে