সিংড়ায় লেপ তোষক তৈরীতে ব্যস্ত কারিগররা

সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১,৩:০২ অপরাহ্ণ
0
28

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সৌরভ সোহরাব, সিংড়া প্রতিনিধি : শীত বাড়ছে সেই সাথে শীত নিবারণের জন্য বাড়ছে লেপ তোষকের দোকানে ক্রেতাদের ভীড়। নাটোরের সিংড়া পৌর শহরের পোষ্ট অফিস মোড়ের তুলাপট্রি বাজারে আছে খাঁন বেডিং ষ্টোর, মা বেডিং ষ্টোর ও নয়ন বেডিং ষ্টোর সহ ১৫ থেকে ২০ টি দোকান।

সরেজমিনে এসব দোকান ঘুরে দেখা যায় লেপ তোষক তৈরীতে কারিগররা ব্যস্ত সময় পার করছেন। তুলার মাপ ঝোক,কাপড় কাটা সেলাই, তুলাধুনা, সব মিলে কারিগরদের ব্যস্ততার শেষ নেই। অগ্রহায়ণ,পৌষ,মাঘ ও ফাল্গুন শীতকালের এই চার মাস লেপ তোষক তৈরীর ভরা মৌসুম। এ মৌসুমে যত কাজ হয় তুলনামুলক সারা বছর কাজ হয় তার অর্ধেক। জাহিদ ,এনামুল ও ইমরুল নামের ৩ কারিগর জানান, সকাল ৮ থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত তাঁরা দোকানে লেপ তোষক তৈরীর কাজ করেন। প্রতিদিন মজুরী হিসাবে পান ৭ শত থেকে ৮শত টাকা অথচ বছরের অন্য সময়ে কাজ কম থাকায় প্রতি দিন মজুরী পেতেন ৩ শত থেকে সাড়ে ৩শত টাকা। শীতের এই মৌসুমে কাজের চাপ ও মজুরী বেশি পাওয়ায় খুশি কারিগররা।

লেপ তোষকের দোকানে আসা শ্রীমতি সীমা রানী নামের এক ক্রেতা জানান, ৪-৫ হাতের একটি লেপ তৈরী করতে আমার খরচ হয়েছে ১৮শত টাকা। গত বছর একই মাপের লেপ তৈরীতে খরচ হয়েছিল ১৫শত টাকা। গতবারের চেয়ে লেপ প্রতি ৩ শত টাকা বেশি লাগছে।

জাবেদ নামের আরেক ক্রেতা জানান, মেয়ে জামাই বাড়িতে দেওয়ার জন্য লেপ তোষক আর বালিশ তৈরীর কাজে এখানে এসেছি। এছাড়া বাড়ির পুরাতন দুটি লেপ তোষক এনেছি মেরামত করে নেওয়ার জন্য।

সিংড়া তুলা পট্রি বাজারের ব্যবসায়ী নাজমুল হুদা ও মোতাহার আলী জানান, লেপ-তোষক বানাতে গার্মেন্টেসের ঝুট,ফম ও কার্পাস তুলো ব্যবহার করতে হয়। এরমধ্যে রয়েছে সুতো, কাপড় ও মজুরি ব্যয়। লেপের চেয়ে তোষকের দাম একটু বেশি পড়ে। তুলার মান, পরিমাণ, নারিকেলের ছোবলা ও কাপড়ের ওপর নির্ভর করে একেকটি তোষক তৈরির ব্যয় ধরা হয়। লেপ তোষকের উপকরণ ও শ্রমিক ব্যয় একটু বৃদ্ধির কারনে গতবারের চেয়ে লেপ তোষক তৈরীর খরচ বেশি পড়ছে। সব খরচ বাদ দিয়ে সীমিত লাভে ক্রেতাদের কাছে শীতের এই সব উপকরণ বিক্রয় করছি।

খাঁন বেডিং ষ্টোর এর স্বত্বাধিকার মোঃ ওমর ফারুক জানান, সারা বছরই কম বেশি কাজ পাই। তবে শীতের এই মৌসুমে কাজ একটু বেশি পাই। শীত যত বাড়ে ব্যবসাও তত ভালো হয়। এখন প্রতিদিন গড়ে ৩ থেকে ৪ টি লেপ তোষকের অর্ডার পান বলে জানান তিনি।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে