সিংড়ায় পলক-শফিক দ্বন্দের অবসান, ঐক্যবদ্ধ আ. লীগ এখন মাঠে

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১৪, ২০২১,১০:৪৯ অপরাহ্ণ
0
5

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সৌরভ সোহরাব,সিংড়া(নাটোর) প্রতিনিধি : আসন্ন ৩০ জানুয়ারী নাটোরের সিংড়া পৌরসভা নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করার লক্ষে সকল দ্বিধাদ্বন্দ ভুলে অবশেষে উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক,তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী আলহাজ এড জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি ও পৌর আ.লীগের সভাপতি,উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক সমর্থকদের র্দীঘ দিনের রাজনৈতিক দ্বন্দের অবসান ঘটলো। স্বস্তি ফিরে আসলো উপজেলা ও পৌর আ.লীগ পরিবারের।

পরিসমাপ্তি হলো সকল জল্পনা কল্পনার। নৌকা বিজয়ের লক্ষে এখন মাঠে নেমে ভোট চাইছেন ঐক্যবদ্ধ আ.লীগ। মাঠে নেমেছেন মনোনয়ন বঞ্চিত সেই ৭ জন প্রার্থী। মেয়র প্রার্থী ফেরদৌসের নৌকা ধীরে ধীরে গণজোয়ারে রুপ নিচ্ছে।

মঙ্গলবার রাত ৮টায় উপজেলা আ.লীগের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় মেয়র প্রার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস অতিতের সকল ভুলের জন্য ক্ষমা চান। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক ক্ষমার সুন্দর দৃষ্টিতে দেখে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান। উপজেলা আ.লীগের সভাপতি শেখ ওহিদুর রহমানের সভাপতিতে এসময় বক্তব্য দেন উপজেলা আ.লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যডভোকেট জিল্লুর রহমান,মনোনয়ন বঞ্চিত সেই ৭ প্রার্থীর পক্ষে বক্তব্য দেন অধ্যাপক গোলাম মহিউদ্দিন টিপু,অধ্যক্ষ আবুবক্কর সিদ্দিক রকি,ভাইস চেয়ারম্যান কামরুল হাসান কামরান। পরে উভয় পক্ষের দ্বিধাদ্বন্দের অবসান ঘটলে ঐক্যবদ্ধ আ.লীগ একযোগে একসাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করার প্রতিশুতি দেন। বুধবার সকাল ১১টায় ৪ নং ওর্য়াড থেকে ভোট চাওয়া শুরু করেন এই ঐক্যবদ্ধ আ.লীগ।

স্থানীয় সুত্রে জানাযায়,গত উপজেলা নির্বাচনে পৌর আ.লীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক চেয়ারম্যান পদে দ্বিতীয় বারের মত নৌকার মনোনয়ন পান। পুর্বের রাজনৈতিক ইস্যুর জের ধরে বর্তমান মেয়র প্রার্থী ফেরদৌস সহ দলের একটি বড় অংশ তাঁর বিপক্ষে অবস্থান নেন। দলের বড় অংশের বাঁধা বিপত্তির পরও বিপুল ভোটে নৌকার পক্ষে বিজয়ী হয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শফিকুল ইসলাম শফিক। এখান থেকেই শুরু হয়্ দ্বন্দ। সাধারণ মানুষের মুখে মুখে পলক গ্রুপ না শফিক গ্রুপ অবস্থান তৈরী হয়। সেই থেকে দুই গ্রুপেই আলাদা আলাদা ভাবে মিটিং মিছিল ও কেন্দ্রীয় কর্মসুচি পালন করতে দেখা গেছে। দুটি গ্রুপের কারনে একদিকে যেমন দলের ভাবমুর্তি নষ্ট হচ্ছিল অন্য দিকে তেমনি দলটির পরিবারে অশান্তিও বিরাজ করছিল। এই ঐক্যবদ্ধ আ.লীগ আগামী ৩০ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ফেরদৌসকে বিপুল ভোটে নৌকার পক্ষে বিজয়ী করে আবারও মেয়র নির্বাচন করবেন এমটাই প্রত্যাশা করছেন তৃণমুল আ.লীগের নেতৃবৃন্দ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে