সিংড়ার বিয়াশে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠ উদ্বোধন

মঙ্গলবার, জুন ১৬, ২০২০,৫:১৮ অপরাহ্ণ
0
36

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সৌরভ সোহরাব,সিংড়া(নাটোর) প্রতিনিধি : নাটোরের সিংড়া উপজেলার ২নং ডাহিয়া ইউনিয়নের বিয়াশ গ্রামে এই প্রথম কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে বিয়াশ দিঘী পাড়া হাসপাতালের পুর্বে দিঘী পাড়া ফুলবাগান জামে মসজিদ সংলগ্ন প্রায় ৫০ শতাংশ জায়গায় এই বিয়াশ কেন্দ্রীয় ফুলবাগান নামে নতুন ঈদগাহ মাঠ নির্মান কাজের শুভ উদ্বোধন করেন ঈদগাহ মাঠের জমিদাতা নাটোর জজ কোর্টের সাবেক জিপি ও সিংড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফজলার রহমান।

উদ্বোধনের আগে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও নবর্নিমিত মাঠ কমিটির সভাপতি মোঃ তারেক হোসেন দুলালের সভাপতিত্বে এবং কমিটির সাধারন সম্পাদক সহকারী শিক্ষক মোঃ শাহিন আলমের পরিচালনায় নবনির্মিত ঈদগাহ মাঠের উন্নয়ন ও বাস্তবায়ন সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ২ নং ডাহিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম এম আবুল কালাম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সিংড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ দপ্তর সম্পাদক মোঃ রেজাউল করিম রেজা,২ নং ডাহিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল মজিদ মামুন,ইউনিয়ন আওয়ামীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আলহাজ হাবিব দুলাল সহ অন্যরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন ২ন ং ডাহিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক জুলহাজ কায়েম, ৪ নং ওর্য়াড আওয়ামীগের সভাপতি সাইফ মাহমুদ,অবসর সেনা সদস্য দুলাল আজিজ সহ বিয়াশ গ্রামের গণ্যমাণ্য ব্যক্তি।

অনুষ্ঠানের সভাপতি তারেক হোসেন দুলাল তাঁর স্বাগতিক বক্তব্যে বলেন, ডাহিয়া ইউনিয়নের সদর দপ্তর গ্রাম হলো বিয়াশ। এখানেই ইউনিয়ন পরিষদ ভবন কমপ্লেক্স স্থাাপিত। বৃহত্তম এই গ্রামে একটি উচ্চ বিদ্যালয়,প্রাথমিক বিদ্যালয়,কওমীয়া মাদ্রাসা,কেন্দ্রীয় কবরস্থান সহ প্রায় প্রতিটি পাড়াতেই মসজিদ থাকলেও গ্রামে কেন্দ্রীয় কোন ঈদগাহ মাঠ নেই। ঈদগাহ মাঠ না থাকায় গ্রামের মানুষ স্থানীয় মসজিদ কিম্বা পাশের গ্রামের ঈদগাহ মাঠে গিয়ে ঈদের নামায আদায় করেন। শুধু মাত্র জায়গার অভাবে আমাদের ঈদগাহ মাঠ নির্মান থেকে এতদিন আমরা পিছিয়ে ছিলাম । আমাদের বিয়াশ গ্রামের কৃতি সন্তান শ্রদ্ধাভাজন আইনজীবি ঈদগাহ মাঠের জন্য জায়গা দান করে গ্রামবাসীদের ঈদগাহ মাঠ নির্মান করার সেই সুযোগ করে দেওয়ায় আমরা তাঁর কাছে চির কৃতঘ্ন।

জমিদাতা এডভোকেট মোঃ ফজলার রহমান বলেন, গ্রামে ঈদগাহ মাঠের সেই শুন্যতা পুরনের লক্ষেই আমি এই জমি দান করেছি। এই জমি মুলত তৎকালীন হিন্দু জমিদারদের বাগান বাড়ি ছিল। সেই ইতিহাস ধরে রাখার জন্যই আমি সকলের সাথে পরার্মশ করে এই ঈদগাহ মাঠের নাম করন করেছি বিয়াশ কেন্দ্রীয় ফুলবাগান ঈদগাহ মাঠ। সকালের সহযোগিতায় এই মাঠের সার্বিক উন্নয়ন প্রত্যাশা করছি। সেই সাথে আমি আশা করছি যতদিন বেঁচে থাকবো ততদিন এই মাঠের উন্ননের জন্য সহযোগিতা করে যাবো।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে