সিংড়ায় নিয়োগে বাদ পড়া প্রার্থীর অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ

বৃহস্পতিবার, জুন ১৭, ২০২১,১১:২৪ অপরাহ্ণ
0
13

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সৌরভ সোহরাব, সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি : নাটোরের সিংড়া উপজেলার পুন্ডরী আলীম মাদ্রাসার কর্মচারী নিয়োগ পরীক্ষায় মেধা যাচাই বাছাইয়ে বাদ পরা এক প্রার্থীর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বাজে মন্তব্য ও অপপ্রচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ওই প্রতিষ্ঠানের পরিচিলনা কমিটি।

বুধবার সকাল ১১টায় পুন্ডরী আলীম মাদ্রাসা হলরুমে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সমাবেশে লিখিত বক্তব্য দেন, প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ মোঃ হযরত আলী। লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সরকারী বিধি মোতাবেক পুন্ডরী আলীম মাদ্রসায় বিভিন্ন কর্মচারী নিয়োগের সকল পক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়। উক্ত নিয়োগে মুক্তিযোদ্ধা মারফত আলীর পুত্র বধু মোছাঃ ববিতা খাতুন অংশ গ্রহণ করেন এবং নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পারায় নিয়োগ বোর্ডের যাচাই বাছাই থেকে বাদ পড়ে যান। 

বাদ পরা এই প্রার্থীর স্বামী  মোঃ মিঠু  ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৪ জুন তার ফেসবুকে নিয়োগ বোর্ড ও মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নানা বাজে মন্তব্য ও অপপ্রচার করে যা সম্পুর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আমাদের প্রতিষ্ঠানের এই নিয়োগে কোন অর্থ বাণিজ্য হয় নাই। মেধা যাচাই বাছাই পর নিয়োগ বোর্ড যোগ্য প্রার্থীদের নিয়োগ দিয়েছেন। অথচ নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পেরে ওই প্রার্থীর স্বামী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে অপপ্রচার করেছে তাতে প্রতিষ্ঠান সহ আমাদের মান ক্ষুন্ন হয়েছে। আমরা এই অপপ্রচারের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।   

প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মোঃ নাসির উদ্দিন বলেন, অপপ্রচারকারী ওই মুক্তিযোদ্ধা পরিবার বর্তমান সরকারী অনেক সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন। মুক্তিযোদ্ধা মারফত আলীর বড় ছেলে মাসুদ একজন সরকারী চাকুরীজীবি। তাদের নামে খাস জমি বরাদ্ধ আছে। এছাড়া তারা বাড়ি ঘর নির্মাণের অনেক দান অনুদান পেয়েছেন। মুক্তিযোদ্ধা মারফত আলীর মৃত্যুর পর ওই পরিবার মুক্তিযোদ্ধা ভাতা পান। যাদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে তারা কেউ জামাত বিএনপির রাজনীতি করে না বরং তারা আওয়ামীলীগের সক্রিয় কর্মী। অপপ্রচারকারী মিঠুর মন্তব্য সম্পুর্ণ ভিত্তিহীন। 

নিয়োগ প্রার্থী তহুরা খাতুন বলেন, আমি একজন দরিদ্র মানুষ। অর্থ দিয়ে আয়া পদে চাকুরী নেওয়ার মত সামর্থন আমার নাই। আমি নিয়োগ পরীক্ষায় সবোর্চ্চ নম্বর পেয়ে নিবার্চিত হয়েছি। 

প্রতিবাদ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, ৪ নং কলম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক মোঃ এমদাদুল হক,প্রতিষ্ঠানের সহ সুপার মোঃ জহুরুল ইসলাম,আলমগীর হোসেন সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে