সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মাধ্যমে জাতীয় ঐক্য সুদৃঢ় করতে হবে : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

বুধবার, মার্চ ১০, ২০২১,৯:০৭ পূর্বাহ্ণ
0
12

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, সাম্প্রদায়িক  সম্প্রীতির মাধ্যমে জাতীয় ঐক্য সুদৃঢ় করতে হবে। তাহলে ২০৪১ সালের  আগেই উন্নত জাতি হিসেবে সারা বিশ্বে নিজেদেরকে  প্রতিষ্ঠিত করতে পারব।

প্রতিমন্ত্রী ৭ মার্চ রাঙ্গামাটিতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ আয়োজিত আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ভাষণের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে সাড়ে সাত কোটি  বাঙালিকে ঐক্যবদ্ধ করতে পেরেছিলেন বলেই অসাধ্যকে সাধন করে জাতির পিতার নেতৃত্বে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ অর্জন করতে পেরেছিলাম। জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে আবারও ঐক্যবদ্ধ হয়ে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জন করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ধর্মের নামে কোন অশুভ শক্তি যেন সমাজকে অস্থিতিশীল না করতে পারে সে বিষয়ে  প্রতিটি ধর্মের সকল ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি আরো বলেন, দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও স্থিতিশীলতা বিরাজ করায় বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা দুরন্ত গতিতে এগিয়ে চলছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের সকল সূচকে অভূতপূর্ব অগ্রগতি সাধন করেছে। যার ফলে সম্প্রতি বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়  ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে। মন্ত্রণালয়ের আওতায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট এবং খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট নিজ নিজ সম্প্রদায়ের উন্নয়ন ও কল্যাণে বহুমুখী উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। মসজিদ, মন্দির, প্যাগোডা, গীর্জাসহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণ, উন্নয়ন, মেরামত ও সংস্কারে সরকার বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

মন্ত্রী বলেন, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় মসজিদ, মন্দির ও প্যাগোডাভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পসমূহের মাধ্যমে আগামী প্রজন্মকে প্রাক-প্রাথমিক ও নৈতিক শিক্ষা প্রদান করে ধর্মীয় ও নৈতিকতাসম্পন্ন যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অং স্য প্রু চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য এডভোকেট দীপংকর তালুকদার এবং হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল।

এর পূর্বে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গামাটির পার্বত্য জেলা উন্নয়ন বোর্ড মিলনায়তনে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় রাঙ্গামাটি জেলায় প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে