সামনের মন্দাকালকে অতিক্রম করতে এই শ্রমিক-কৃষকদের ওপরই নির্ভর করতে হবে

শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২,১২:৪১ অপরাহ্ণ
0
20

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সৈয়দ আমিরুজ্জামান, বিশেষ প্রতিনিধি : ‘রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন পাটকলগুলোকে বন্ধ করে দিয়ে সরকার কেবল পাটকল শ্রমিক, পাটচাষীদের পেটেই লাথি মারেন নাই, দেশের সংবিধানের উপরও আঘাত করেছেন। একই কথা গার্মেন্টস শ্রমিকদের নিয়ে। দেশের বৈদেশিক মুদ্রার জন্য তাদের ওপর নির্ভর করতে হলেও তাদের মজুরী কাজের পরিবেশ সম্পর্কে সরকারের হুশ নাই। অথচ সামনের মন্দাকালকে অতিক্রম করতে এই শ্রমিক-কৃষকদের ওপরই নির্ভর করতে হবে।’ 

আজ এদেশের কিংবদন্তী শ্রমিক নেতাদের স্মরণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি এসব কথা বলেন। 

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির ৫০ বছর পুর্তি উপলক্ষে বছরব্যাপি কর্মসূচীর অংশ হিসেবে অদ্য শুক্রবার (২৫ নভেম্বর ২০২২) বিকাল ৩টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম (৩য় তলা) মিলনায়তনে শ্রমিক আন্দোলনের কিংবদন্তী ও পুরোধা নেতৃত্ব কমরেড আবুল বাশার, কমরেড শফিকুর রহমান মজুমদার, কমরেড নাসিম আলী, কমরেড এটিএম নিজামুদ্দিন, কমরেড হাফিজুর রহমান ভূঁইয়া ও কমরেড শফিউদ্দিন আহমেদ স্মরণ: ‘‘বাংলাদেশের শ্রমিক আন্দোলনের অতীত ও বর্তমান” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

সভায় বক্তব্য রাখেন ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি কামরূল আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আমিরুল হক আমিন, শ্রমিকনেতা হিমাংশু সাহা, শ্রমিকনেতা দিদারুল আলম, শ্রমিকনেতা খলিলুর রহমান, বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী সমন্বয় পরিষদের মহাসচিব নোমানুজ্জামান আল আজদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। মূলপত্র উত্থাপন করেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড শরীফ শমশির। 

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে