সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

মঙ্গলবার, জুলাই ১৪, ২০২০,৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
0
16

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আজ ১৪ জুলাই জাতীয় পাটির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী।

রংপুর নগরীর দর্শনা এলাকায় পল্লী নিবাসের লিচু বাগানে তাঁর সমাধি কমপ্লেক্সে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে জাতীয় পার্টির শীর্ষ পর্যায়ের নেতাকর্মী, সমর্থক ও এরশাদ ভক্তদের সমাগম ঘটবে সাবেক রাষ্ট্রপ্রধান এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে।

রাজধানী ঢাকা ছাড়াও এরশাদের আতুরঘর রংপুরেও নেওয়া হয়েছে নানা কর্মসূচি। যদিও করোনার কারণে দলের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীর আয়োজন সীমিত করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এরশাদের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, আলোচনা, কোরআনখানি ও দোয়া মাহফিল। অনুষ্ঠানে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

রংপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, দলের প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পল্লী নিবাসে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও এরশাদ ভক্তদের সমাগম ঘটবে। সবাই যাতে সুন্দর পরিবেশে দেশের সাবেক রাষ্ট্রপতির সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও জিয়ারত করতে পারেন সেজন্য সমাধি কমপ্লেক্সের প্রাথমিক পর্যায়ের নির্মাণ কাজ শেষ করা হয়েছে।

এরশাদ ১৯৮২ থেকে ১৯৯০ পর্যন্ত নয় বছর রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিলেন। ১৯৮৬ সালে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন জাতীয় পার্টি। শুরু  থেকেই বৃহত্তর রংপুর পরিণত হয় জাতীয় পার্টির দুর্গে। তাঁর মৃত্যুর পর ভক্ত ও অনুসারীদের দাবির মুখে তাঁকে রংপুরের পল্লী নিবাসে সমাহিত করা হয়।

১৯৩০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি অবিভক্ত ভারতের কোচবিহার জেলার দিনহাটায় জন্মগ্রহণ করেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। পরে পরিবারের সঙ্গে রংপুরে চলে আসেন তিনি। ২০১৯ সালের ১৪ জুলাই ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ৯০ বছর বয়সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে