সরকার জরুরি প্রয়োজনে সরাসরি ভ্যাকসিন কিনবে

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২০,৪:১৫ অপরাহ্ণ
0
9

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সরকার করোনাভাইরাস থেকে দেশের মানুষকে সুরক্ষা দিতে জরুরি প্রয়োজনে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে ভ্যাকসিন বা টিকা কেনার নীতিগত প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে। গতকাল বুধবার এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের অনুপস্থিতিতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবু সালেহ মোস্তফা কামাল ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অনুমোদিত বিষয়গুলো তুলে ধরেন। ভ্যাকসিন কেনার সিদ্ধান্তের বিষয়ে তিনি বলেন, সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে ভ্যাকসিন কেনা হবে। এসংক্রান্ত প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কত টাকায় করোনার ভ্যাকসিন কেনা হচ্ছে—এ বিষয়ে জানতে চাইলে আবু সালেহ বলেন, টাকা-পয়সার বিষয়টি ক্রয়সংক্রান্ত প্রস্তাবে এলে আলোচিত হবে।

দরপত্র ছাড়া কেন টিকা কেনা হচ্ছে—এমন প্রশ্নের জবাবে অতিরিক্ত সচিব বলেন, একই সময়ে টিকা নিতে হবে। সরকারি ক্রয়বিধি অনুযায়ী, এক বছরে এককালীন পাঁচ কোটি টাকার বেশি কোনো কিছু কিনতে গেলে বিষয়টি ক্রয় কমিটিতে আসে। এককালীন সরবরাহ নিতে হবে বলে ভ্যালুয়েশন বেশি। পিপিআর, ২০০৮-এর ৭৬ (২) বিধি অনুসরণ করে প্রস্তাবটি এ কমিটির বিবেচনার জন্য এসেছিল।

অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকের পর ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ভারতের বীরভূম থেকে ৫০ হাজার টন নন-বাসমতি সিদ্ধ চাল আমদানিসহ ১২টি দর প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। খাদ্য বিভাগ কর্তৃক টেবিলে উত্থাপিত প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি কেজি ৩৫.২৭ টাকা দরে এতে ব্যয় হবে ১৭৬ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। ভারতীয় কম্পানি এমএসটিকে অ্যাগ্রিলিংক এ চাল সরবরাহ করবে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে