সচিবালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে দোয়া অনুষ্ঠিত

সোমবার, নভেম্বর ২, ২০২০,৭:৪৬ অপরাহ্ণ
0
6

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সা.) ১৪৪২ হিজরি উদ্‌যাপন উপলক্ষে গতকাল বা’দ যোহর বাংলাদেশ সচিবালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

          মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) এর জীবন ও আদর্শের ওপর সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

          আলোচনায় মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারি  পরিস্থিতিতে পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন বিশেষ গুরুত্ব বহন করে। মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) এর জীবন ও আদর্শ অনুসরণের মাধ্যমে আমরা করোনা ভাইরাসের কঠিন পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পেতে পারি। এ বিষয়ে হাদিসের উদ্বৃতি দিয়ে তিনি বলেন, আমাদেরকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, ধৈর্য ধারণ করতে হবে এবং নিজেদের অন্যায় অপরাধের জন্য বেশি বেশি ক্ষমা চাইতে হবে। এ প্রসঙ্গে তিনি সকলকে সরকারের নির্দেশ অনুসরণ করে আবশ্যিকভাবে মাস্ক পরিধান এবং স্বাস্থ্যবিধি  মেনে চলার আহবান জানান।

          মন্ত্রিপরিষদ সচিব  আরও বলেন, রাসুল (সা.) এর বিরুদ্ধ্ববাদীরা তাঁর বিরুদ্ধ্ব্বে অসংখ্য বই লিখেছে। কিন্তু তারাও স্বীকার করত তিনি কখনো মিথ্যা বলেননি এবং আমানতের খেয়ানত করেননি। আমাদেরকে রাসুলের সত্যিকারের উম্মত হিসেবে মিথ্যা না বলা এবং আমানতদারিতার গুণাবলী অর্জন করতে হবে।

          মিলাদ পরিচালনা করেন সচিবালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব মুফতি মো: ওমর ফারুক এবং দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম  মুফতী মাওলানা মুহিব্বুল্লাহিল বাকী।

          ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ নূরুল ইসলাম দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন। সভায় দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া মাহফিলে সচিবালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিপুল সংখ্যক মুসল্লী অংশগ্রহণ করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে