সংগঠিত খাতের শ্রমিক ও শ্রমজীবিদের আপদকালীন নগদ সহায়তা দিন

বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০,১০:১০ পূর্বাহ্ণ
0
22

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বিশ্বট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশন বাংলাদেশ কমিটির নেতৃবৃন্দ আজ এক বিবিৃতিতে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে  বিশেষ করে হোমকোয়ারেন্টাইন বা সংগনিরোধ বিধি পালনকালে অসংগঠিত খাতের শ্রমজীবি মানুষ যারা দিনআনে দিনখায় তাদের জীবিকা অর্জন বন্ধ হয়েছে, তাদের পরিবার নিয়ে জীবন ধারণ সংকটে পড়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, দেশে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে শ্রমিক ও শ্রমজীবি মানুষের সংখ্যা শতকরা ৮৫%। এরা তাদের আয়ের অর্থ দিয়ে শুধু নিজেরাই বাঁচে না দেশের অর্থনীতিকেও সচল রাখে। এই অবস্থায় রপ্তানি মুখী শিল্পে শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন-ভাতার জন্য ৫০০০ কোটি টাকার তহবিলের মত এসকল অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের  শ্রমিক ও শ্রমজীবিদের জন্য আপৎকালীন বিশেষ তহবিল গঠন, জরুরী খাদ্য সরবরাহ এবং জনপ্রতিনিধি ও শ্রমিকনেতৃবৃন্দেও সমন্বয়ে গঠিত তদারকি কমিটির মাধ্যমে তা তাদের মাঝে দ্রুত বিতরণের ব্যবস্থা করার আহ্বান জানিয়েছে।

আজ এক বিবৃতিতে তারা বলেন, দেশের এ্ই প্রান্তিক জনগোষ্ঠি তাদের জীবিকা অজনের পথ বন্ধ হওয়ায় কঠিন সংকটে পড়েছেন। এই পরিস্থিতে তাদের জরুরি ত্রান ও খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা প্রয়োজন। ইতিমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রি শ্রমজীবি মানুদেরও সহায়তা দেয়ার ঘোষনা দিয়েছেন। বিবৃতিতে তারা সংগনিরোধ কালিন সৃষ্ট সংকট মোকাবেলায় ও মানবিক বিপর্যয় থেকে জীবিকা রুদ্ধ শ্রমজীবি মানুষকে রক্ষা  জন্য সামর্থবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান। বিবৃতি দাতারা হলেন ডাঃ ওয়াজেদু ইসলাম খান, মেজবাহউদ্দিন আহমেদ, কামরূল আহসান, রাজেকুজ্জামান রতন, নাইমুল আহসান জুয়েল ও নোমানুজ্জামান আল আজাদ প্রমুখ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে