শ্রমিক ফেডারেশনের সাবেক সভাপতি শফিউদ্দিন আহমেদের জীবনাবসান

রবিবার, নভেম্বর ১৫, ২০২০,১১:৩২ অপরাহ্ণ
0
5

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি স্কপের সাবেক সমন্বয়ক বষিয়ান শ্রমিক নেতা নারায়ণগঞ্জের পুরোধা জননেতা শফিউদ্দিন আহমেদ ১৫ নভেম্বর ভোররাত ৩.২০ মিঃ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহে রাজেউন)।

মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। তিনি গত দুইবছর যাবত বাধক্যজনিত কারণে বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। গত একমাস যাবত প্রথমে বারডেম হাসপাতাল পরে ধানমন্ডি ক্লিনিক ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্য্যাকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

তিনি ছিলেন আজীবন সংগ্রামী, শ্রমিকশ্রেণীর আপোষহীন নেতা। সাধারণ বীমা কর্মচারী ইউনিয়নের মাধ্যমে তিনি শ্রমিক আন্দোলনে যোগ দেন এবং পরবর্তীতে তিনি সাধারণ বীমা কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি হন। নারায়ণগঞ্জে জুট বেইলিং প্রেস শ্রমিক ইউনিয়নসহ নারায়ণগঞ্জের অসংখ্য শ্রমিক ইউনিয়ন তাঁর হাতে তৈরী বিশেষ করে গার্মেন্টস ইউনিয়ন গঠনের ব্যাপারে তিনি নেতৃস্থানীয় ভূমিকা রাখেন। জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনে সভাপতি কমরেড আবুল বাশারের মৃত্যৃর পর তিনি পাটকল শ্রমিক কর্মচারীদের আন্দোলনকে এগিয়ে নেন এবং জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি হিসাবে শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ তথা স্কপের সমন্বয়কের ভূমিকা পালন করেন।

ব্যক্তিজীবনে নির্মোহ ও নিরহংকারী শফিউদ্দিন আহমেদ মৃত্যুকালে ৫ ছেলে, ১ মেয়ে, নাতি-নাতনী ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী সভাপতি কামরূল আহসান এবং সাধারণ সম্পাদক আমিরুল হক আমিন গভীর শোক ও পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন। তারা বলেন, শফিউদ্দিন আহমেদ মৃত্যুতে দেশের শ্রমিক শ্রেণী একজন দিশারীকে হারালো, যে ক্ষতি আর কোনোভাবে পূরণ হবে না।

জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যনির্বাহী সভাপতি কামরূল আহসান নেতৃত্বে পুষ্পার্ঘ নিবেদন করা হয়।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে