শুধু সেপ্টেম্বরেই ১২৯ ধর্ষণসহ মোট ৩৪০ নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার

শুক্রবার, অক্টোবর ২, ২০২০,২:৩৮ অপরাহ্ণ
0
47

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের লিগ্যাল এইড উপ-পরিষদে সংরক্ষিত ১৩টি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে ২০২০ সালে সেপ্টেম্বর মাসের শিশু নির্যাতন উদ্বেগজনকভাবে বৃদ্ধি পেয়ে ১৭৩ জন কন্যাশিশু নির্যাতন এবং ১২৯ জন ধর্ষণের ঘটনাসহ মোট ৩৪০ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের ঘটনার প্রতিবেদন গণমাধ্যমে প্রেরণ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ অনুসারে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে মোট ৩৪০ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে তন্মধ্যে ২০ জন গণধর্ষণসহ ১২৯ জন ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তন্মধ্যে ৭৩ জন শিশুসহ ১০৯ জন ধর্ষণের শিকার হয়েছে এবং ১০ জন শিশুসহ ২০ জন গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। এছাড়া ৬ জন শিশুসহ ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ৯ জনকে। শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে ৪ জন তন্মধ্যে শিশু ২ জন। ৪ জন শিশুসহ যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে ৭ জন। এসিডদগ্ধের শিকার ৬ জন তন্মধ্যে শিশু ২ জন।

অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে ৫ জন তন্মধ্যে শিশু ১ জন এবং অগ্নিদগ্ধের কারণে ২ নারীর মৃত্যু হয়েছে। উত্ত্যক্তকরণের শিকার হয়েছে ২ জন। অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট ২০ জন তন্মধ্যে শিশু ১৬ জন। এছাড়া অপহরণের চেষ্টা করা হয় ১ জনকে। নারী পাচার করা হয়েছে ৩ জন। বিভিন্ন কারণে ৭ জন শিশুসহ ৩৬ জনকে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়া ২ জন শিশুসহ ৩ জনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতন করা হয়েছে ১৪ জন, তন্মধ্যে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে ৫ জনকে। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ৭ জন শিশুসহ ২৭ জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারনে ১৪ জন শিশুসহ আত্মহত্যা করেছে ২০ জন এবং ৬ জন শিশুসহ ২৮ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিবাহ সংক্রান্ত ঘটনা ঘটেছে ১৯ টি। সাইবার ক্রাইম অপরাধের শিকার ৪ জন নারী।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে