শিক্ষা ঋণ পেল নোবিপ্রবির ১৩২ শিক্ষার্থী

বুধবার, মার্চ ১০, ২০২১,৫:০৯ অপরাহ্ণ
0
12

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি : নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ১৩২ জন অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীকে স্মার্টফোন কেনার জন্য শিক্ষা ঋণ দেওয়া হয়েছে। অনলাইন ক্লাসে শিক্ষার্থীদের শতভাগ উপস্থিতি নিশ্চিত করতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) অর্থায়নে ‘সফ্ট লোন’ নামে এই ঋণ দেওয়া হয়।
আজ ১০ই মার্চ একজন শিক্ষার্থীকে প্রদানের মাধ্যমে উক্ত কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ দিদার-উল-আলম। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন নোবিপ্রবি কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক মজনুর রহমান ও সাইবার সেন্টারের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মাহমুদুল হাসান রানা। 
গত নভেম্বর মাসে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাঠানো ৬২২ জন শিক্ষার্থীর আবেদন পুরোটাই গৃহীত হয়।
এদের মধ্যে পরবর্তীতে ১৩২ জন শিক্ষার্থী শিক্ষা ঋণ গ্রহণের যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করেন। চূড়ান্ত যাচাই-বাছাই শেষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ১৩২ জনকেই শিক্ষার্থীর ‘সফ্ট লোন’র আবেদন মঞ্জুর করে।

শিক্ষা ঋণ কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর জানান, স্মার্টফোন কেনার জন্য শিক্ষা ঋণ হিসেবে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ৮,০০০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। যা শিক্ষার্থীরা তাদের বিভাগীয় চেয়ারম্যান থেকে গ্রহণ করবে। সুদবিহীন এই ঋণের অর্থ সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর কিংবা অধ্যয়নকালীন সময়ে ৪টি সমান কিস্তিতে বা এককালীন পরিশোধ করতে হবে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে