রেলপথ মন্ত্রণালয়ে যোগ দিলেন মাহবুব কবির মিলন

রবিবার, মে ৩, ২০২০,১:৩৫ অপরাহ্ণ
0
15

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

রেলপথ মন্ত্রণালয়ে যোগ দিলেন মাহবুব কবির মিলন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ থেকে। আজ নিজেই সোশ্যাল সাইটে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এই কর্মকর্তা। বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি এর আগে। পাশাপাশি ভিন্ন মন্ত্রণালয় হলেও রেলওয়ে নিয়ে বেশ কিছু কাজ করেছেন এবং সবসময় সোশ্যাল সাইটে রেলের নানা সমস্যা নিয়ে কথা বলতেন। এজন্য তিনি সাধারণ মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয়।

মাহাবুব মিলন লিখেছেন, ‘বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ থেকে অবমুক্ত হয়ে আজ অপরাহ্নে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে রেলপথ মন্ত্রণালয়ে যোগদান করলাম। নতুন পথ চলা বলব না, কারণ গত ৫/৬ বছর হতে অন্য দপ্তরে থেকে রেলের কাজ করে যাচ্ছিলাম। রেলে অনেক ভালো কাজে অবদান রাখার সুযোগ পেয়েছিলাম। এমন কিছু কাজ সূচনা করতে হয়েছিল যে, আমি আর রেল সচিব স্যার ছাড়া কেউ জানতেন না। সেখানেই পদায়ন হয়েছে আমার। ‘

‘আমার প্যাশন আর ভালবাসার জায়গা রেল। আজ থেকে আমি রেলের লোক। আগে টেবিলের এক পাশে বসে অভিযোগ করতাম। এখন হতে অন্যপাশে সমাধানের লোক। আমি আর অভিযোগকারী নই। এখন হতে শুধু শুনব আপনাদের কাছ থেকে। মতামত আর পরামর্শ নেব আপনাদের কাছ থেকে। শুনব আপনাদের দীর্ঘদিনের যন্ত্রণা আর কষ্টের কথা। সর্বক্ষত্রেই হবে আমার বিচরণ। আমার কাজ হবে রেলের উন্নয়নে, রেলকে সর্বোত সাহায্য করা। কথা দিচ্ছি নিরাশ করব না। মহান আল্লাহ সহায়।’

‘আমি যখন চট্টগ্রাম থেকে নিরাপদ খাদ্যে পোস্টিং নিতে আসলাম ঢাকায়। তখন আমাকে বলা হয়েছিল, সেখানে না যেতে। বলা হয়েছিল ওটা একটা ডাম্পিং গ্রাউন্ড। কেউ চেনে না এই ডিপার্টমেন্টকে। ওখানে গেলে প্রমোশন হবে না। সেখানেই আমার প্রমোশন হয়েছে। কি রেখে গেলাম তা আপনারাই ভালো বলতে পারবেন। অপার ভালোবাসা থাকবে আমার ওই দপ্তরের প্রতি। অনেক অনেক কষ্ট করেছি। এমন কিছু কাজ করেছি, যা করার আগে কেউ জানত না। রিস্ক নিয়েছি একা। দেশের কল্যাণে।’

‘আমি কোন কিছুতেই ভয় পাই না। ভয় পাই না কাউকেই। চাকুরির কোন মায়া নেই আমার। আল্লাহ সহায়। আমার শক্তি সবার ভালবাসা। আমি স্বপ্ন দেখি তাই, যার বাস্তবায়ন নিশ্চিত, ইনশাআল্লাহ।’

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে