রাজধানীতে ৪ দিনব্যাপী পার্বত্য মেলা

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৬, ২০২২,৯:০৩ পূর্বাহ্ণ
0
36

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে রাজধানীর বেইলী রোড়ে শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্সে চার দিনব্যাপী পার্বত্য মেলা গতকাল শুরু হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর  উৎপাদিত পণ্যসামগ্রীর প্রচার ও বিপণনের মাধ্যমে তাদের অর্থনৈতিক স্বনির্ভরতার লক্ষ্যে প্রতি বছরের মতো এবারও এ মেলার  আয়োজন করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান প্রধান অতিথি হিসেবে মেলা উদ্বোধন করেন। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তির মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামে দুই দশক ধরে চলমান সংঘাতের অবসান করে  উন্নয়নের দ্বার উন্মোচন করেন। শান্তি চুক্তির ধারাবাহিকতায় বর্তমান সরকারের সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। অনেক উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রামে যে সকল সমস্যা রয়েছে তা পর্যায়ক্রমে সমাধান করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

সভাপতির বক্তৃতায় পার্বত্যমন্ত্রী বলেন, পার্বত্য মেলা আয়োজনের মাধ্যমে হস্ত ও কুটির শিল্প, বাঁশ-বেত, কৃষি দ্রব্যাদি ও ফলমূল প্রদর্শন ও বিক্রয়ের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। এতে পাহাড়িদের সাথে রাজধানীবাসীর মেলবন্ধন সৃষ্টি হবে। পার্বত্যাঞ্চলে রাস্তাঘাট, কৃষি, স্বাস্থ্য খাতে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের ফলে কৃষক তাদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে। পার্বত্য এলাকার জনগণের জীবনমান উন্নয়নে সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলে তিনি জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য বাসন্ত্রী চাকমা, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, রাঙগামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী। অনুষ্ঠানে স্বগত বক্তব্য রাখেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোসাম্মৎ হামিদা বেগম।

সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত এ মেলা ৫-৮ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে। প্রতিদিন বিকাল ৫টা থেকে পাবর্ত্য জেলার শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে