মানবতার মুক্তির জন্য রসুলের (সা:) অনুসরণে বড়পীর ছিলেন অনুপ্রেরণার আদর্শ

রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০,১২:৩৮ অপরাহ্ণ
0
9

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

মানবতার মুক্তির জন্য রসুল সঃ এর অনুসরণে বড়পীর হযরত আব্দুল কাদের জিলানী (রাঃ) ছিলেন এক অনুপ্রেরণা ও অনুপম আদর্শ। গোমরাহী থেকে মানুষের মুক্তির জন্যে যার প্রচেষ্টা ছিলো অনন্য। কোটি কোটি বনী আদমকে তিনি জান্নাতের দিকে পথ দেখিয়েছেন। সর্বস্তরের মানুষের সুখ ও সমৃদ্ধি ছিল তার যুগান্তকারী প্রচেষ্টা। আধ্যাতিকতার সঠিক পথে মুমিনদের সমৃদ্ধ করতে তরিকায়ে আলিয়া কাদেরিয়া তারই অনুসৃত পন্থা।

আনজুমানে ইত্তেহাদ বাংলাদেশ কক্সবাজার বাইতুশ শরফ কমপ্লেক্স এর উদ্যোগে আয়োজিত বিশাল ইছালে ছওয়াব মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে আনজুমানে ইত্তেহাদ বাংলাদেশের বরেণ্য সভাপতি রাহবারে বায়তুশ শরফ আল্লামা আব্দুল হাই নদভী (মা:জি: আ:) উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

মাহফিলে ইছালে ছওয়াবের জনসমুদ্রে তিনি আরো বলেন, বায়তুশ শরফ মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে পরিচালিত একটি বহুমুখী কমপ্লেক্স এর নাম। সাত শতাধিক প্রতিষ্ঠানের অন্যতম হচ্ছে এই কক্সবাজার বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স। অত্যাধুনিক চক্ষু হাসপাতালসহ সকল প্রতিষ্ঠান আমাদের পীর মুরিদগণের অবদান। রসুল সঃ ও সাহাবায়ে কেরামের অনুসৃত পন্থায় বাইতুশ শরফ পরিচালিত। জীবনের সকল ক্ষেত্রে সুন্নতে রাসূলের অনুস্মরণে আধ্যাত্মিক উন্নতি ও মানবতার সেবায় এগিয়ে আসতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

গত ২৭ নভেম্বর জুমাবার কক্সবাজর বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্স এ অনুষ্ঠিত বিশাল এ ইছালে ছওয়াব মাহফিলে বিশেষ বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখছেন কক্সবাজার ৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মজলিসুল উলামা বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী, অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হক আল-আযহারী, অধ্যক্ষ মাওলানা হাফিজুল হক নিজামী, উপাধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হক ওসমানী, মাওলানা নজরুল ইসলাম, মাওলানা মো: লোকমান, মাওলানা কাজী জাফর আহমদ, মাওলানা নুুরুল আলম ফারুকী, অধ্যক্ষ মাওলানা আবু সালেহ মুহাম্মদ ছলিমুল্লাহ, ড. মাহমুদুল হক ওসমানী, মাওলানা শফিক আহমদ নঈমী,আনজুমনে নওজোয়ানের সভাপতি মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, মাওলানা মুহিব্বুর রহমান, গাজী মাওলানা শরিয়ত উল্লাহ-জিহাদী, মাওলানা ফারুক হোসাইন, খতীব মাওলানা রিদওয়ানুল হক নিজামী, মাওলানা কাজী শিহাব উদ্দিন, মাওলানা মো: ইসমাইল, মাওলানা জিয়াউল করীম আনসারী এবং সঞ্চালনা করেন হযরত মাওলানা ওমর ফারুক প্রমুখ। বিশাল এ ইছালে ছওয়াব মাহফিলে সকাল থেকে পবিত্র খতমে কুরআনুল করীম, খতমে বুখারী শরীফ, খতমে খাজেগানসহ দাওয়াত ও দু’আ অনুষ্ঠিত হয়।

বিশেষ অতিথি সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন, ইসলাম সহিষ্ণুতার ধর্ম। নবী করীম (স:) জীবনদ্দশায় উহুদের যুদ্ধ ও হুনাইনের যুদ্ধে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তা আমাদের অনুসরণ করতে হবে। ইসলামের উদারতাকে মানুষের মাঝে তুলে ধরার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান। মজলিসুল উলামার মহাসচিব মাওলানা মামুনুর রশীদ নূরী বলেন, বড়পীর আবদুল কাদের জিলানীর অনুসরণ ও অনুকরণে বায়তুশ শরফ একটি শিরক ও বেদআত মুক্ত দরবার। পরকালীন মুক্তির জন্য আধ্যাত্মিকতার বিকল্প নেই। আধ্যাত্মিক জ্ঞান অর্জন পীর মুর্শিদ ছাড়া হয় না।

এ কমপ্লেক্স এর মহাসচিব আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম উক্ত প্রতিষ্ঠান সমূহ পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তিনি বর্তমানে অসুস্থ, ঢাকায় চিকিৎসাধিন। তার আশু সুস্থতার জন্য বিশেষভাবে দোয়া করা হচ্ছে। আল্লাহ পাক তাকে সুস্থ জীবন দান করুন।

এ বিশাল ইছালে ছওয়াব মাহফিলে বাদ মাগরিব জিকির মাহফিল পরিচালিত হয়। যা আকাশ বাতাশ মুখরিত করে তোলে। তাহাজ্জুদের পরও এ জিকির মাহফিল পরিচালিত হয়। বাদ ফজর তাওবা ইসতেগফার ও বায়’আত গ্রহণের পর পীর ছাহেব হুজুর বিশেষ মুনাজাত পরিচালনার মাধ্যমে মাহফিলের সমাপ্তি হয়।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে