মহিলা পরিষদ ঢাকা মহানগর সংগঠন উপ-পরিষদের সাংগঠনিক পক্ষের সমাপনী সভা অনুষ্ঠিত

রবিবার, নভেম্বর ১৩, ২০২২,১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ
0
29

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

গতকাল শনিবার (১২ নভেম্বর) ২০২২  বিকাল ৩.৩০ টায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের ঢাকা মহানগর কমিটির সংগঠন উপ পরিষদের উদ্যোগে  সুফিয়া কামাল ভবন মিলনায়তনে সংগঠনের সাংগঠনিক পক্ষের সমাপনী সভার অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনের শক্তি সংহত করি, সংগঠকের অসাম্প্রদায়িক,গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও পেশাদারী দক্ষতা জোরদার করি” এই স্লোগানকে সামনে রেখে সাংগঠনিক পক্ষের আয়োজন করা হয়।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সাংগঠনিক পক্ষের সমাপনী সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের ঢাকা  কমিটির সহ-সভাপতি  রচি হাবীব।সাংগঠনিক পক্ষʼ২২ এর সমাপনী সভার অনুষ্ঠানের শুরুতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন  মাহফুজা আক্তার রুমি সদস্য ঢাকা মহানগর। আবৃত্তি করেন সৈয়দ রত্না সদস্য সংগঠন উপপরিষদ ঢাকা মহানগর।

শুভেচ্ছা বক্তব্যে সংগঠনের ঢাকা মহানগরের সহ-সাধারণ সম্পাদক মঞ্জু ধর সবাইকে শুভেচ্ছা কেন্দ্র হতে তৃণমূল পর্যন্ত সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করা এবং সংগঠনের কার্যক্রমে তরুণ প্রজন্মকে সম্পৃক্ত  করার মাধ্যমেই সংগঠনের শক্তি বৃদ্ধি করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন।

সংগঠনের সাংগঠনিক পক্ষ,২২ পালন কর্মসূচির সমাপনী  অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে সংগঠনের ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক রেহানা ইউনুস , সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা কবি সুফিয়া কামালকে স্মরণ করেন তার আদর্শ ধারণ করে নারীর মানবাধিকার  ও নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে ঢাকা মহানগরের প্রতিটি সদস্যকে ধারাবাহিকভাবে সাংগঠনিক কাজে যুক্ত হতে হবে। সংগঠনের ঢাকা মহানগর কমিটির সকল পাড়ার সদস্যদের সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি করা। পাড়া মাসিক সভা নিয়মিত করার উদ্যোগ গ্রহণ করা এবং সাংগঠনিক কার্যক্রম সঠিকভাবে বাস্তবায়ন এর সদস্য সংগ্রহ করার  পাশাপাশি যোগাযোগ আহ্বায়ক পাড়া শাখা গুলোকে পূর্ণাঙ্গ পাড়া কমিটিতে রূপান্তরিত করতে হবে। সংগঠনের সমাচার প্রতিটি পাড়া শাখার সদস্যকে নিতে হবে সংগঠন সম্পর্কে জ্ঞান সমৃদ্ধ ও অর্জনে সমাচারের গুরুত্ব অপরিসীম। নারীর আন্দোলনকে আরও বিস্তৃত ও  চলমান করার আহ্বান জানিয়েছেন।

সাংগঠনিক পক্ষের প্রতিবেদন পেশ করেন সংগঠনের ঢাকা মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক কানিজ ফাতেমা টগর বলেন,সকল কর্মী সংগঠকদের আন্তরিক সহযোগিতা ও অংশ গ্রহণে সকল কর্মসূচি সফলভাবে পালিত হয়েছে। মহানগরের বিভিন্ন পাড়া শাখার সার্বিক চিত্র তুলে ধরেন। স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে সংগঠনের কার্যক্রমে যুক্ত হয়ে ধারাবাহিক কার্যক্রম গ্রহণের মাধ্যমে সংগঠনেকে আরও শক্তিশালী করা সম্ভব। সকল পাড়া কমিটিকে সক্রিয়ভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।এভাবে আগামীতে সংগঠনের সকল কার্যক্রমে সকল কর্মী-সংগঠকদের আরও দায়িত্বশীল ও সচেতনভাবে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়।

মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন  ঢাকা মহানগর কমিটির  বিভিন্ন পাড়া শাখার সদস্যবৃন্দ।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রকাশনা সম্পাদক সারাবান তহুরা বলেন, পাড়া শাখার সকল সদস্যদের দীর্ঘদিনের সক্রিয় কার্যক্রমের মাধ্যমে সংগঠনের সাংগঠনিক কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে। সার্বক্ষণিক ব্যস্ততার মাঝেও আমাদের সংগঠনের কাজে ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে হবে। সংগঠকের যত্নের প্রয়োজন মনোবল দৃঢ়  রেখে কৌশশী হয়ে সংগঠনের কার্যক্রমে নিজের দক্ষতা যাচাই এর মধ্য দিয়ে নতুন ভাবে কাজের গতি বৃদ্ধি পাবে। পাড়া কমিটির সদস্য বৃদ্ধি করা নিয়মিত মাসিক সভা করা এবং নিয়মিত পাড়া শাখায় যোগাযোগ বৃদ্ধি করা।

সংগঠনের  কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক উম্মে সালমা বেগম বলেন,সারা বছর যে কাজগুলো করা হয়েছে  এবং  কতজনের কাছে পৌঁছানো গিয়েছে এর মাধ্যমেই সংগঠনের কার্যক্রমের মূল্যায়ন করার মাধ্যমেই সাংগঠনিক পক্ষের  সফলতা । ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সাংগঠনিক জবাবদিহিতামূলক,   সংগঠনের লক্ষ্য ও আদর্শকে সংহত করে সংগঠন পরিচালিত হয় পাড়া কমিটি ও কেন্দ্রীয় কমিটির যৌথ নেতৃত্ব মাধ্যমে সংগঠনের কর্মসূচি ও কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়।সংগঠনের কেন্দ্রীয় পর্যায় হতে পাড়া  শাখায় ধারাবাহিক কার্যক্রম ও কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ গ্রহণ করা। সাংগঠনিক কার্যক্রমে দায়িত্ব ভাগ নেওয়া এবং  পরিচালনায় ক্ষেত্রে  মতামত ভিন্ন হতে পারে কিন্তু সম্মিলিত ভাবে সকলকে মিলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে। সাংগঠনিক পক্ষ পালন কর্মসূচিতে সংগঠক ও পাড়া শাখার সদস্যবৃন্দদের উদ্দেশ্যে তিনি ক্রমাগত নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে দক্ষতা, শক্তি অর্জন ও দৃষ্টিভঙ্গি উন্নত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

সভাপতির বক্তব্যে ঢাকা মহানগরের সহ-সভাপতি রচি হাবীব বক্তব্যের  সাংগঠনিক কাজের ধারাবাহিকতা রক্ষা করা পাড়া শাখার সদস্য বৃদ্ধি করা । সাংগঠনিক দক্ষতা অর্জনে  সমাচার পড়তে বলতে হবে। নারীদের নিজেদের সচেতনত হতে হবে। সংগঠনের কাজের জন্য সময় রাখতে হবে। পাড়া থেকে আগত সকল সংগঠক ও কর্মীদের আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। সভাপতির বক্তব্যের  মধ্য দিয়ে সাংগঠনিক পক্ষের সমাপনী অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষণা করেন।

সংগঠনের সাংগঠনিক পক্ষের সমাপনী অনুষ্ঠানের সভা সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগরের সংগঠন উপপরিষদের সদস্য আরিফা আক্তার কাঁকন। সংগঠনের সাংগঠনিক পক্ষের সমাপনী অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ ও ঢাকা মহানগর কমিটির নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন পাড়া শাখার  ৭০ জন সদস্য   উপস্থিত ছিলেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে