ভূমিদস্যুর অত্যাচারে অসহায় পরিরার ভিটে মাটি ছাড়া

মঙ্গলবার, নভেম্বর ৩, ২০২০,৮:৩১ অপরাহ্ণ
0
25

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা আঙ্গারীয়া গ্রামের এক অসহায় পরিবারে বসত ভিটাসহ ১২ শতাংশ জমি দখল করে নিয়েছে ভূমিদস্যু আঙ্গারীয়া আলিম মাদ্রাসার শিক্ষক ও রাজাপুর গাজীবাড়ি জামে মসজিদের ইমাম আমিনুল ইসলাম নেছারি এবং এই কাজে সহযোগীতা করছে তার বাবা ফরিদ তালুকদার ও তার ছোট ভাই নাসির তালুকদার।

এই পরিবারটি গত ২০২০সালে ১৮ মার্চ ঝালকাঠির আদালতে ৮৮/২০২০ মামলা দায়ের করেছিল এবং এই যায়গার উপরে আদালত ১৪৪ ধারা জারি করে এবং পুলিশ ঘটনাস্থালে গিয়ে উভয়পক্ষকে যে যাহার অবস্থানে থাকার নির্দেশ দেয়। কিন্তু আমিনুল ইসলাম এই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অসহায় পরিবারের তাসলিমা বেগমের ঘরের আসবাবপত্র লুট করে বসতঘর ভেঙ্গে নতুন ঘর তৈরী ও একটি দোকান তুলে দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন করে।

গত ৩০ অক্টোবর এই ঘটনার পর রাজাপুর থানা পুলিশকে অবহিত করলে রাজাপুর পুলিশ প্রশাসন এই অসহায় পরিবারকে সহযোগীতা করছেনা মর্মে ঝালকাঠি প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে মোসাঃ তসলিমা বেগম অভিযোগ করেন এবং একই সাথে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীসহ উর্ধতন মহলে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মঙ্গলবার আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে মোসাঃ তাসলিমা বেগম আরও জানায় ২০ বছর পূর্বে তার স্বামীর মৃত্যুর পরে  ৪মেয়ে ও ১ ছেলেকে নিয়ে সে অসহায় অবস্থায় জীবন জাপন করছিল। তার অসহায় অবস্থার সুযোগ নিয়ে ভূমিদস্যু ও ইমাম আমিনুল ইসলাম এই অপকর্ম চলেছেন। আরও অভিযোগ করা হয়েছে আমিনুল ইসলাম নেছারী ইতোপূর্বে রাজাপুর মসজিদের ইমাম থেকে বহিস্কৃত হয় এবং বর্তমানে রাজাপুর গাজীবাড়ি মসজিদের ইমামতি করছে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে