ভারতের চলমান কৃষক আন্দোলনের প্রতি সংহতি জ্ঞাপন : জাতীয় কৃষক সমিতি

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২১,৪:৪৭ অপরাহ্ণ
0
16

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক এক প্রস্তাবে ভারতের কৃষকদের সংগ্রামের সাথে সংহতি ঘোষণা করেছে। গত ৪ ফেব্রুয়ারি ভার্চুয়াল মাধ্যমে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে ভারতের কৃষকদের এই শান্তিপূর্ণ অবস্থানে সে দেশের সরকারের নিপীড়নের নিন্দা জানান হয়।

জাতীয় কৃষক সমিতির প্রস্তাবে বলা হয় কেবল ভারতেই নয়, বাংলাদেশের কৃষি ক্ষেত্রকে বহু আগেই বহুজাতিক কর্পোরেশনগুলোর জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে। কৃষকদের আন্দোলনে মনগান্টোর মত বহুজাতিক কোম্পানীকে ঠেকান গেলেও, ঔষধ, যন্ত্রাদির ক্ষেত্রে কৃষক পুরোপুরি বাজারের অধীন হয়ে পড়েছে। বিএডিসি-র কার্যক্রমকে সংকুচিত করা হয়েছে। সরকার ফসলের নূন্যতম মূল্য বির্ধারণ না করার ফলে কৃষকরা ধান কৃষিযন্ত্রের উৎপাদন খরচ উঠতে পারেনা।

প্রস্তাব বলা হয়, পাটকল-চিনিকল বন্ধ করায় পাট চাষী-আখচাষীদের ক্ষতিগ্রস্ত করার নিন্দা জানান হয় এবং এ ব্যাপারে পাটকল ও চিনিকল রক্ষার আন্দোলনের সাথে সংহতি জ্ঞাপন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় কৃষক সমিতির সভাপতি মাহমুদুল হাসান মানিক।

আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড আনিসুর রহমান মল্লিক, জাতীয় কৃষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম গোলাপ, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম হক্কানী, ইব্রাহিম খলিল, দীপংকর সাহা দীপু, হবিবুর রহমান, মোস্তফা আলমগীর রতন, নজরুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, গোলাম নওজব পাওয়ার, আবুল কালাম আজাদ খান চৌধুরী প্রমুখ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে