বিশ্বনবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ঝালকাঠিতে বিক্ষোভ ও সমাবেশ

শুক্রবার, অক্টোবর ৩০, ২০২০,১১:৪৩ পূর্বাহ্ণ
0
34

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ফ্রান্সে বিশ্বনবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ও তাদের সকল পণ্য নিষিদ্ধের দাবিতে ঝালকাঠিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ হিযবুল্লাহ জমিয়াতুল মুছলিহীন।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় বাংলাদেশ হিযবুল্লাহ জমিয়াতুল মুছলিহীনের আমির মাওলানা খলীলুর রহমান নেছারাবাদীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় ঈদগা ময়দান থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে।পরে মিছিলটি পূর্বচাঁদকাঠি এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। বিক্ষোভ মিছিলে দল-মত নির্বিশেষে সকল শ্রেণি পেশার শত শত মানুষ অংশ নেয়। এর আগে কেন্দ্রীয় মসজিদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন  বাংলাদেশ হিযবুল্লাহ জমিয়াতুল মুছলিহীনের আমির মাওলানা খলীলুর রহমান নেছারাবাদী। ঝালকাঠি আদর্শ সমাজ বাস্তবায়ন পরিষদের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলমের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, বাংলাদেশ হিযবুল্লাহ জমিয়াতুল মুছলিহীনের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা মুহম্মদ মাছুম বিল্লাহ আযীযাবাদী, এন এস কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ গাজী মো. শহিদুল ইসলাম, আদর্শ সমাজ বাস্তবায়ন পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. মোসাদ্দেক হোসেন খান, জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আনু, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি অ্যাডভোকেট ইউসুফ আলী মোল্লা, পৌর শাখার সভাপতি মনোয়ার হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুজ্জামান স্বপন ও নেছারাবাদী হুজুরের ছেলে মুহম্মদ আযীযুর রহমান তাকী।

সমাবেশে বক্তারা ফ্রান্সের সকল পণ্য বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার দাবি জানান। পাশপাশি ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য প্রত্যাহার করে বিশ্ববাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা না করলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন বক্তারা। সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ হিযবুল্লাহ জমিয়াতুল মুছলিহীনের আমির মাওলানা খলীলুর রহমান নেছারাবাদী বলেন, বাক স্বাধীনতার নামে ফ্রান্স ইসলাম বিরোধী চরম অসত্য ও নোংরা খেলা শুরু করেছে।

সরকারি বহুতল ভবনে পুলিশ পাহারায় বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করেছে। আমরা এর প্রতিবাদ এবং নাস্তিকতা ও ধর্মহীনতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীও কিছুদিন আগে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়েছেন। এসব উগ্র কর্মকাণ্ড প্রমাণ করে যে, তারা বাক স্বাধীনতার নামে ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।

এ ধরনের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া মুসলমানদের নৈতিক ও ঈমানী দায়িত্ব। আমরা স্পষ্ট জানিয়ে দিতে চাই, বিশ্বনবীর (সঃ) অপমান বরদাশত করা হবে না। আমরা সকল মুসলমানদের প্রতি ফ্রান্সের সকল প্রকার পণ্য বর্জন করার আহ্বান জানাচ্ছি। পাশাপাশি ব্যবসায়ী ভাইদেরকে ফ্রান্সের পণ্য আমদানী না করার আহ্বান জানাচ্ছি। 

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে