বিমস্টেক এফটিএ স্বাক্ষরের মাধ্যমে পারস্পরিক বাণিজ্য বৃদ্ধি সম্ভব

বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০,৭:৩২ পূর্বাহ্ণ
0
7

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, বিমস্টেক এফটিএ স্বাক্ষরিত হলে বাংলাদেশ, ভারত, মিয়ানমার, শ্রীলংকা, থাইল্যান্ড, নেপাল এবং ভুটানের বাণিজ্যে নতুন দিগন্তের সূচনা হবে। সদস্যভুক্ত দেশগুলো এ বিষয়ে কাজ করছে। বে অফ বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মালটি-সেক্টরাল টেকনিকেল এন্ড ইকোনমিক কো-অপারেশন (বিমস্টেক) কার্যকরভাবে সদস্য দেশগুলোর মধ্যে বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য কাজ করে যাচ্ছে, সুফলও পাওয়া যাচ্ছে। ইন্টিগ্রেটিং বিমস্টেক-২০২০ এক্ষেত্রে কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে তিনি মনে করেন।

মন্ত্রী গতকাল ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ভারত চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে মুম্বাইয়ে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে দু’দিনব্যাপী ‘বিমস্টেক এক্সপো-২০২০’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইন্ডিয়ান চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির মহাপরিচালক ড. রাজিব সিং। গেস্ট অফ অনার হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভারতের এক্সটার্নার এফেয়ার্স মন্ত্রণালয়ের এডিশনাল সেক্রেটারি ভিরান্দার পাউল। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলী আহমেদ, বিহার রাজ্যের ইনভেস্টমেন্ট কমিশনার আর এস  শ্রীভাষ্টাভা, এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার ব্যবস্থাপনা পরিচালক উধারফ জধংয়ঁরহযধ।  অনুষ্ঠানে কী-নোট উপস্থাপন করেন বিমস্টেক সেক্রেটারিয়েট এর পরিচালক ড. ধামারু বল্লবহা পাওডেল।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে