বিদ্যুত ও পানির মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা প্রত্যাহারের আহ্বান : ওয়ার্কার্স পার্টি

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০,৬:২৬ পূর্বাহ্ণ
0
4

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]


বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি বিআরসি কর্তৃক বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণাকে যুক্তিহীন ও একপেশে বলে অভিহিত করে তা প্রত্যাহার করার আহ্বান জানিয়েছে। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, বিদ্যুৎ নিয়ন্ত্রক সংস্থা- বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশন (বিআরসি) কর্তৃক আহুত দফায় দফায় গণশুনানীতে বিদ্যুৎ ভোক্তাদের পক্ষ থেকে বিদ্যুতের মূল্য কমানোর পক্ষে অত্যন্ত যুক্তিসঙ্গতভাবে যে তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করা হয়েছিল, তা কোনভাবেই খন্ডন করতে পারেনি ‘বিআরসি’ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ভোক্তাদের সকল যুক্তিকে অগ্রাহ্য করে ‘বিআরসি’ গ্রাহক পর্যায়ে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি করলো। বিবৃতিতে বলা হয়, বিদ্যুতের আরেক দফা এই মূল্য বৃদ্ধি সাধারণ ভোক্তাদের উপর যেমন আর্থিক চাপ তৈরি হবে, তেমনি উৎপাদিত পণ্য মূল্যও বেড়ে যাবে। বিশেষ করে দৈনন্দিন জীবনযাত্রার ব্যয় ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়বে। যা সামগ্রিক অর্থনীতিতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে জনজীবনের সংকট আরও বৃদ্ধি করবে।

একই সঙ্গে নেতৃবৃন্দ ঢাকায় ওয়াসার ২৪.৯৭ শতাংশ ও চট্টগ্রামে ২৫ শতাংশ পানির মূল্য বৃদ্ধির তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, বিদ্যুত ও পানির দাম বাড়ানোর ফলে এতে শিল্প উৎপাদন, বিশেষ করে পোশাক খাত ভয়াবহ ক্ষতির মুখে পড়বে। কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাবে। বাধাগ্রস্ত হবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে