বাগেরহাটে বাসের ধাক্কায় আহত মায়ের মৃত্যু, বিচার দাবিতে বিক্ষোভ

মঙ্গলবার, আগস্ট ৬, ২০১৯,১০:০৬ পূর্বাহ্ণ
0
10

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বাগেরহাটের শরণখোলায় বাসের ধাক্কায় মারা গেছেন আহত সেই নাছিমা বেগম (৪০) ।  খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থার তাঁর মৃত্যু হয় গতকাল সোমবার রাত ১১টার দিকে। উপজেলার উত্তর কদমতলা গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী শহিদুল পহলানের স্ত্রী নিহত ওই নারী ।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন দুপুরে বাসা থেকে নাছিমা বেগম ও তার ছেলে খুলনার সুন্দরবন পলিটেকনিক কলেজের ছাত্র নাজমুল পহলান ভ্যানযোগে উপজেলা সদর রায়েন্দা বাজারে যাওয়ার পথে পাঁচরাস্তা বাদল চত্বর মোড়ে তাফালবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহী বাস ব্রেকফেল করে ধাক্কা দেয় একটি ভ্যানে। এতে ভ্যানচালক শারিরীক প্রতিবন্ধী সবুর মিয়ার (৪৫) দুটি পা ভেঙে যায় এবং গুরুতর আহত হন তাঁরা(মা-ছেলে) । বর্তমানে  খুমেক হাসপাতালের আ্ইসিইউতে সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় রয়েছে নাজমুল।

এদিকে নাছিমা বেগমের মৃত্যু খবরে আজ মঙ্গলবার সকালে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে শরণখোলার সর্বস্তরের ছাত্র-জনতা। তাঁরা সকাল ১০টায় উপজেলা সদরে বিক্ষোভ মিছিল শেষে দুর্ঘটনাস্থল পাঁচরাস্তা বাদল চত্বরে প্রতিবাদ সভা করে ঘাতক চালকের বিচার, নিরাপদ সড়ক, শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ রুটে ফিটনেসবিহীন বাস চলাচল বন্ধ এবং উপজেলার ব্যবস্তম বাদল চত্বর মোড়ে দাবি জানান ট্রাফিক পুলিশ নিয়োজিত রাখার ।রায়েন্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন, ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শরীফ খায়রুল ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান আসাদ, কলেজ ছাত্র বায়জীদ ফকির ও নওয়াজ আমীন সভায় বক্তব্য রাখেন ।

শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ-মোংলা বাস ও মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি শামীম আহসান পলাশ বলেন, বাস মালিক-শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বসে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।এ ব্যাপারে শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্তকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার সরকার বলেন, মামলার প্রস্তুতি চলছে এ ঘটনায় । জব্দ রয়েছে ঘাতক বাসটি ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে