বর্ণবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশকেও সোচ্চার হতে হবে : মেনন

সোমবার, জুন ৮, ২০২০,১১:৪১ পূর্বাহ্ণ
0
33

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বর্ণবাদ বিরোধী জনগণের সংগ্রামের সমর্থন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অঙ্গীকার অথচ যুক্তরাষ্ট্রসহ সারা বিশ্বে যখন সেই বর্ণবাদী নিষ্ঠুরতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ চলছে তখন বাংলাদেশ রাষ্ট্রও নিশ্চুপ, গণতান্ত্রিক শক্তিও নিশ্চুপ। কালোদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমানাধিকারের বিরুদ্ধে বাংলাদেশকেও সোচ্চার হতে হবে। সোচ্চার হতে হবে সকল গণতান্ত্রিক শক্তিকে। কমরেড মুস্তাফিজুর রহমান কাবুল বেঁচে থাকলে যুক্তরাষ্ট্রের এই ঘটনার বিরুদ্ধে শুধু কলমই ধরতেন না, মিছিলে মানুষকে সংগঠিত করতেন।

আজ ৮ জুন ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও যশোর জেলা সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য কমরেড মুস্তাফিজুর রহমান কাবুল স্মরণে ঢাকা মহানগর আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও কনফারেন্স মাধ্যমে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি জননেতা কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি একথা বলেন। মেনন বলেন, কাবুল ছিলেন পার্টির ঐক্যের জন্য সংগ্রামের প্রতীক। দশম কংগ্রেসকে কেন্দ্র করে যশোরে যে পার্টি ভাঙ্গনের ষড়যন্ত্র হয়েছিল তিনি তাকে সফলভাবে রুখে দিয়েছিলেন। ক্যান্সার তাকে আমাদের মাঝ থেকে ছিনিয়ে নিলেও, তিনি আমাদের মাঝে চিরজীবি থাকবেন।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগর আয়োজিত শোক সভায় সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় সদস্য ও ঢাকা মহানগর সভাপতি কমরেড আবুল হোসাইন। বক্তব্য রাখেন পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য কমরেড কামরূল আহসান, কেন্দ্রীয় সদস্য ও ঢাকা মহানগর সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোর রায়, কেন্দ্রীয় ও মহানগর সদস্য কমরেড মোস্তাফিজুর রহমান কাবুলের ঘনিষ্ট সহযোদ্ধা কমরেড বেনজির আহমেদ, ঢাকা মহানগর সম্পাদকম-লীর সদস্য কমরেড কাবুলের ঘনিষ্ট সহযোদ্ধা কমরেড জাহাঙ্গীর আলম ফজলু এবং কেন্দ্রীয় ও মহানগর সদস্য কমরেড শাহানা ফেরদৌসি লাকী প্রমুখ। শোক সভায় সংহতি জানাতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড এড. জোবাইদা পারভীন, কমরেড জাকির হোসেন রাজু, কমরেড মোস্তফা আলমগীর রতন সহ নেতৃবৃন্দ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে