বছরের মাঝামাঝি সময়ে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা

মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১১, ২০২২,৯:৫৬ পূর্বাহ্ণ
0
4

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখন বন্ধ হবে না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সীমিত পরিসরে কার্যক্রম যেভাবে চলছিল, সেভাবে চলবে। পাশাপাশি শিক্ষা কার্যক্রম পুরোদমে শুরু করতে চলতি মাসের মধ্যেই ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী সব স্কুলশিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হবে।

গতকাল সোমবার (১০ জানুয়ারি) তিনি এ তথ্য জানান এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের বিস্তারের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হলেও টিকায় জোর দিচ্ছে সরকার। যেসব শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্যঝুঁকি বেশি, আপাতত তাদের স্কুলে না গিয়ে অনলাইনে ক্লাসে যোগ দিতে বলা হচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রতিবছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি ও সমমান এবং ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর কথা থাকলেও এবার নির্ধারিত সময়ে এসব পরীক্ষা হবে না। বছরের মাঝামাঝি এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

দীপু মনি বলেন, ‘এবারের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা সময়মতো হবে না। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে। কতগুলো বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া হবে, পরিস্থিতি বুঝে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। হয়তো বছরের মাঝামাঝি গিয়ে পরীক্ষা নিতে পারব। এখনই তারিখ দেওয়া সম্ভব নয়। আমরা পর্যবেক্ষণ করতে থাকব। পরীক্ষা নেওয়ার মতো পরিস্থিতি হলে পরীক্ষা হবে। দুই-তিন মাস আগে হয়তো পরীক্ষার তারিখ বলতে পারব। পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকলে তারিখ পেছাবে।’

তিনি আরো বলেন, দেশে ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী মোট শিক্ষার্থী এক কোটি ১৬ লাখ ২৩ হাজার ৩২২ জন। তাদের মধ্যে টিকা পেয়েছে ৪০ লাখ ৩২ হাজার ৫৬৯ জন। শতকরা ৩৫ শতাংশ শিক্ষার্থী টিকার আওতায় এসেছে। টিকা নেওয়া বাকি আছে ৭৫ লাখ ৯০ হাজার ৭৫৩ শিক্ষার্থীর।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে