বঙ্গোপসাগরে ডুবল দু’টি জাহাজ, ২১ নাবিক উদ্ধার

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৮, ২০১৯,৬:২১ পূর্বাহ্ণ
0
52

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

গভীর বঙ্গোপসাগরে ডুবে যাওয়া দু’টি লাইটারেজ জাহাজের নৌ এবং বিমান বাহিনী ২১ জন নাবিককে জীবিত উদ্ধার করেছে ।  তাদের উদ্ধার করা হয় বুধবার (০৭ আগস্ট) বিকেলে সাগরে ভাসমান অবস্থায়। তবে এখনো নিখোঁজ রয়েছেন দু’জন নাবিক ।

বুধবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামে বিমান বাহিনীর ২টি হেলিকপ্টার একে একে অবতরণ করার সাথে সাথে হাসি ফুটে উঠে সেখানে উপস্থিত বিমান বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের চোখে মুখে। একে বৈরী আবহাওয়া, তার উপরে উত্তাল সাগরে ভাসমান নাবিকদের উদ্ধারের মতো দুরূহ কাজ। ডুবন্ত একটি ট্রলার থেকে ঘাঁটিতে নিয়ে আসা হয় ১১ জনকে উদ্ধার করে । বিমান ঘাঁটিতেই চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয় সবার।
 
বিমান বাহিনীর পাইলট ক্যাপ্টেন এম এ মতিন বলেন, আমরা যখন গিয়েছি, দেখি জাহাজের ছাদের ওপর তারা বসে আছেন
জড়ো হয়ে ।

সিমেন্ট ক্লিংকারবাহী ২টি লাইটারেজ জাহাজ ডুবির খবর পেয়েই নৌ বাহিনীর তিনটি জাহাজ
ঘটনাস্থলে ছুটে যায় । এসময় তারা উদ্ধার করে ১০ জনকে । মূলত জাহাজ ডুবে যাওয়ার আগেই প্রাণ বাঁচাতে তারা ঝাঁপিয়ে পড়েছিল সাগরে । পরে রাতে তাদের নৌ বাহিনীর জাহাজ দূর্জয় করে পতেঙ্গা নৌ ঘাঁটিতে নিয়ে আসা হয়। উদ্ধারকৃত ১০ জনকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে নেভী হাসপাতালে ।

পতেঙ্গা নৌ ঘাঁটির অধিনায়ক ক্যাপ্টেন রাশেদ সাত্তার বলেন, উদ্ধারদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে সেরকম ভয় পাওয়ার কিছু নেই।বৈরী আবহাওয়ার কবলে পড়ে টিটু ১৮ এবং টিটু ১৯ নামের সিমেন্ট ক্লিংকারবাহী জাহাজ ২ টি ডুবে গিয়েছিলো। এতে নাবিক ছিলেন
মোট ২৩ জন ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে