বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্য তথ্য উদঘাটন এখন সময়ের দাবি : তথ্য ও সম্প্রচার সচিব

সোমবার, আগস্ট ১৬, ২০২১,১১:৫৩ অপরাহ্ণ
0
10

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্য তথ্য উদ্‌ঘাটন এখন সময়ের দাবি

বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্য তথ্য উদ্‌ঘাটন এখন সময়ের দাবি, বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার সচিব  মোঃ মকবুল হোসেন।

আজ সচিবালয়ে তথ্য অধিদফতর আয়োজিত ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সচিব বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যার নকশা একদিনে হয়নি বা এটি শুধুমাত্র গুটিকতক সেনাসদস্যের বিষয় নয়। একশ’ মিনিট ধরে পরিচালিত এই হত্যাকাণ্ড স্বাধীনতা বিরোধীদের দীর্ঘদিনের পরিকল্পিত চক্রান্তের অংশ এবং স্বাধীনতার অর্ধশত বছর পরেও সেই ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো সক্রিয় আছে। সেকারণেই বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্য তথ্য উদ্‌ঘাটন এখন সময়ের দাবি।’

সচিব মোঃ মকবুল হোসেন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি, প্রশাসনিক দক্ষতা ও চিন্তাচেতনা একান্তই তার নিজস্ব, তার সমসাময়িক বা পূর্বের কোনো বিশ্বনেতার ভাবনা তিনি অনুসরণ করেননি। এখানেই তিনি অনন্য। বঙ্গবন্ধুই প্রথম বাঙালিদের জন্য স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখেছেন এবং কোটি কোটি বাঙালিকে অনুপ্রাণিত করে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন। সেকারণেই তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি এবং তার আদর্শ সকল বাঙালির জন্য অনুসরণীয় এবং জীবনের পাথেয়স্বরূপ।’ প্রধান তথ্য অফিসার মোঃ শাহেনুর মিয়ার সভাপতিত্বে সভায় বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহিন ইসলাম, বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক সোহরাব হোসেন, গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বিধান চন্দ্র কর্মকার, তথ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান তথ্য অফিসার ফায়জুল হক, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী মোঃ আবুল কালাম আজাদ, তথ্য অধিদফতর ও এর আঞ্চলিক দপ্তরগুলোর কর্মকর্তাবৃন্দ এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে সংযুক্ত জনসংযোগ কর্মকর্তাবৃন্দ ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর আলোকপাত করেন এবং জাতীয় শোক দিবসে নিজ নিজ দপ্তরে পালিত কর্মসূচি তুলে ধরেন।

বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্য তথ্য উদ্‌ঘাটন এখন সময়ের দাবি, বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচার সচিব  মোঃ মকবুল হোসেন।

আজ সচিবালয়ে তথ্য অধিদফতর আয়োজিত ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সচিব বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যার নকশা একদিনে হয়নি বা এটি শুধুমাত্র গুটিকতক সেনাসদস্যের বিষয় নয়। একশ’ মিনিট ধরে পরিচালিত এই হত্যাকাণ্ড স্বাধীনতা বিরোধীদের দীর্ঘদিনের পরিকল্পিত চক্রান্তের অংশ এবং স্বাধীনতার অর্ধশত বছর পরেও সেই ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো সক্রিয় আছে। সেকারণেই বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্য তথ্য উদ্‌ঘাটন এখন সময়ের দাবি।’

সচিব মোঃ মকবুল হোসেন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি, প্রশাসনিক দক্ষতা ও চিন্তাচেতনা একান্তই তার নিজস্ব, তার সমসাময়িক বা পূর্বের কোনো বিশ্বনেতার ভাবনা তিনি অনুসরণ করেননি। এখানেই তিনি অনন্য। বঙ্গবন্ধুই প্রথম বাঙালিদের জন্য স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখেছেন এবং কোটি কোটি বাঙালিকে অনুপ্রাণিত করে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন। সেকারণেই তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি এবং তার আদর্শ সকল বাঙালির জন্য অনুসরণীয় এবং জীবনের পাথেয়স্বরূপ।’ প্রধান তথ্য অফিসার মোঃ শাহেনুর মিয়ার সভাপতিত্বে সভায় বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক শাহিন ইসলাম, বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক সোহরাব হোসেন, গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বিধান চন্দ্র কর্মকার, তথ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত প্রধান তথ্য অফিসার ফায়জুল হক, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী মোঃ আবুল কালাম আজাদ, তথ্য অধিদফতর ও এর আঞ্চলিক দপ্তরগুলোর কর্মকর্তাবৃন্দ এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে সংযুক্ত জনসংযোগ কর্মকর্তাবৃন্দ ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর আলোকপাত করেন এবং জাতীয় শোক দিবসে নিজ নিজ দপ্তরে পালিত কর্মসূচি তুলে ধরেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে