বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদ নেতৃবৃন্দের ‘এআইপি সম্মাননা ২০২০’ অনুষ্ঠানে  যোগদান

মঙ্গলবার, আগস্ট ২, ২০২২,১২:০৬ পূর্বাহ্ণ
0
43

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

নিজস্ব সংবাদদাতা : কৃষি মন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রথমবারের মত  ১৩ জনকে  কৃষিতে ০৫টি ক্যাটাগরিতে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ’কৃষিক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি ( এআইপি) সম্মাননা ২০২০’ প্রদান করা হয় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তন, ঢাকায় গত ২৭ জুলাই’২২ তারিখে।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত  পরিষদ বাংলাদেশ এর সভাপতি বিভূতিভূষণ রায়, সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ মোঃ মুজাহিদ নোমানী, যুগ্ম মহাসচিব মোঃ মামুনুর রশিদ এবং আইন ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মনিন্দ্র নাথ সিংহ বিশেষ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উক্ত অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।

০৫টি বিভাগে ১৩ জনের মধ্যে ‘ক’ বিভাগে ’কৃষি উদ্ভাবন জাত/প্রযুক্তি’ ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ০৪ জনকে সমম্মানা দেয়া হয় যথা : বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান উপাচার্য প্রফেসর ড.লুৎফুল হাসান,আতাউস সোপান মালিক, ব্যবস্থাপনা পরিচালক,এ আর মালিক সীডস্ প্রাঃ লিমিটেড,ঢাকা, সৈয়দ আব্দুল মতিন,
ফিউচার অর্গানিক ফার্ম, রামপাল, বাগেরহাট এবং আলীমুস ছাদাত চৌধুরী, আলীম ইন্ড্রাস্ট্রিস লিমিটেড, বিসিক শিল্পনগরী, সিলেট।

’খ’ বিভাগ : কৃষি উৎপাদন / বাণিজ্যিক খামার স্থাপন ও কৃষিপ্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প” ক্ষেত্রে এআইপি সম্মাননা পেয়েছেন ০৬ জন।

তাঁরা হলেন : মোঃ সেলিম রেজা, দৃষ্টান্ত এগ্রো ফার্ম এন্ড নার্সারি, নাটোর সদর,নাটোর, মোঃ মেহেদী আহসান উল্লাহ চৌধুরী, ঠাকুরগাঁও সদর, ঠাকুরগাঁও, মোঃ মাহফুজুর রহমান,এশা ইন্টিগ্রেটেড এগ্রিকালচার ফার্ম, ঝালকাঠি, মোঃ বদরুল হায়দার বেপারী, জাগো কেঁচো  সার উৎপাদন খামার,পিরোজপুর, মোঃ শাহবাজ হোসেন খান, নূর জাহান গার্ডেন, বাউফল পটুয়াখালী এবং মোঃ সামছুদ্দিন(  কালু), বিসমিল্লাহ মৎস্য বীজ উৎপাদন কেন্দ্র ও খামার,নাঙ্গলকোট, কুমিল্লা।

’ঘ’ বিভাগঃ স্বীকৃত বা সরকার কর্তৃক রেজিষ্ট্রিকৃত কৃষি ফসল/মৎস্য প্রাণিসম্পদ/ বনজসম্পদ উপখাতভুক্ত সংগঠন” ক্যাটাগরিতে ০১ জন এই সম্মাননা পেয়ছেন। তিনি হচ্ছেন মোঃ জাহাঙ্গীর আলম শাহ, শাহ্ কৃষি তথ্য পাঠাগার ও জাদুঘর, মান্দা,নওগাঁ।

’ঙ’ বিভাগ : বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার স্বর্ণপদক প্রাপ্ত” ক্যাাটাগরিতে পেয়েছেন ০২ জন। মোছাঃ নুরুন্নাহার বেগম, নুরুন্নাহার কৃষি খামার, ঈশ্বরদী, পাবনা এবং মোঃ শাহজাহান আলী বাদশা( পেপে বাদশাহ) মা-মনি কৃষি খামার,ঈশ্বরদী, পাবনা।

মোঃ সায়েদুল ইসলাম, সচিব, কৃষি  মন্ত্রণালয়- এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এমপি, মাননীয় মন্ত্রী, কৃষি মন্ত্রণালয়। বিশেষ অতিথি হিসেবে পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি র পরিবর্তে উপস্থিত ছিলেন ঐ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় উপ- মন্ত্রী হাবিবুন নাহার এমপি।

সকাল ১০.০০ ঘটিকায় যথারীতি পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও ত্রিপিটক পাঠ শেষে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ওয়াহিদা  আক্তার, অতিরিক্ত সচিব,কৃষি মন্ত্রণালয়। এরপর ০৫ মিনিটব্যাপী ‘কৃষির অগ্রযাত্রা’ বিষয়ক একটি চমৎকার  প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

এরপর সচিব মোঃ সায়েদুল ইসলামের সন্চালনায় ’কৃষিক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি (এআিইপি) সমম্মাননা ২০২০’ প্রাপ্তদের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি ও নাম ঘোষণা করেন। এ সময় ’এআইপি সম্মাননা ২০২০’ প্রাপ্ত ব্যাক্তিগণ একে একে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথির কাছ হতে সম্মাননা ক্রেষ্ট, সনদপত্র ও সম্মানী গ্রহণ করেন।

’এআইপি ২০২০ সম্মাননা’ প্রাপ্তদের অনুভূতি প্রকাশ পর্বে হ্রদয় ছোঁয়া বক্তব্য রাখেন মোছাঃ নুরুন্নাহার বেগম।
তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন ’আমি স্কুলে লেখাপড়ার গণ্ডি পার হইতে পারি নাই কিন্তু মাটিকে, কৃষিকে ভালবাইসা কাজ কইরাছি। মাটিকে আমার ঘুষ দিতে হয় নাই বরং মাটি আমাকে নাম,যশ,অর্থ, পুরস্কারসহ অনেক কিছু দিছে।’

’আমার ছেলেদেরকে বলেছি তোদের অন্য কোথাও চাকরী করার দরকার নেই, তোরা আমার খামারে চাকরী করবি, আমি তোদেরকে বেতন দিব।’
মৎস্যক্ষেত্রে বাণিজ্যিক খামার স্থাপনকারী সফল ব্যবসায়ী মোঃ সামছুদ্দিন( কালু) তাঁর বক্তব্যে  প্রথমবারের মতো ’এআইপি সম্মাননা ২০২০’  প্রদানের জন্য কৃষি অন্তপ্রাণ বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ’সিআইপি -র মত কৃষিক্ষেত্রেও ’ এআইপি সম্মাননা ’ চালু করার জন্য কৃতজ্ঞতা জানিয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ের দক্ষ কৃষিবিদ কৃষিমন্ত্রী ড. এম. এ.রাজ্জাক এমপি মহোদয়,  কৃষিবিদ কৃষি সচিব মহোদয়সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান।

পাশাপাশি তিনি মৎস্য খামারসমুহকে শিল্প হিসেবে  স্বীকৃতি প্রদান এবং কৃষি জমিতে সেচ প্রদানে প্রদত্ত হ্রাসকৃত বৈদ্যুতিক বিলের হার মৎস্য খামারগুলোতেও কার্যকর করার জন্য কৃষি মন্ত্রী এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মহোদয়ের প্রতি আবেদন জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যের পর প্রধান অতিথি মাননীয় কৃষিমন্ত্রী মহোদয় তাঁর বক্তব্যে বলেন সরকারের এই মহৎ উদ্যোগের ফলে কৃষিক্ষেত্রে একটি নতুন অধ্যায় সংযোজিত হলো।এর ফলে কৃষি পেশার মর্যাদা আরও বৃদ্ধি পাবে।

সেইসাথে উপস্থিত ইলেকট্রনিক, প্রিন্ট মিডিয়া এবং বিটিভিসহ সকল প্রচার মাধ্যমে ’প্রথমবারের মত এআইপি সম্মাননা ২০২০’ প্রাপ্ত দুজনের সাবলীল ও খোলামেলা বক্তব্য ফলাও করে প্রচারের জন্য কৃষিমন্ত্রী মহোদয় আহ্বান জানান।

সবশেষে সভাপতির ভাষণে কৃষি সচিব কৃষিক্ষেত্রে আরো অবদান রাখার আহব্বান জানিয়ে ও সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে