বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদের ‘বার্ষিক সাধারণ সভা ২০২২’ অনুষ্ঠিত

রবিবার, আগস্ট ২১, ২০২২,১১:৪০ অপরাহ্ণ
0
73

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

নিজস্ব সংবাদদাতা : বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদ, বাংলাদেশ  সেপ্টেম্বর ২০১৯ মাসে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর ২০২০ সাল হতে শুরু হওয়া বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ তথা ভয়ংকর করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মহামারীর ফলে শুধুমাত্র বিভিন্ন জাতীয় দিবসের অনুষ্ঠান সমুহ সীমিত আকারে উদযাপন  ছাড়া আর কোন বড় ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজন করা সম্ভব হয়নি।

যাহোক ২০২২ এর শুরু হতে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি হওয়ায় “ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ, ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ১০২ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২২-সহ ২৬ মার্চ  স্বাধীনতা দিবস”-এর জাতীয় অনুষ্ঠান উদযাপন করা হয় আড়ম্বরপূর্ণভাবে।

তারই ধারাবাহিতায় ২৭ জুলাই’২২ তারিখে প্রথমবারের মত কৃষি মন্ত্রণালয় কর্তৃক ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে কৃষির বিভিন্ন ক্ষেত্রে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ১৩ জন ব্যাক্তিকে ” কৃষিক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তি (এআইপি) সম্মাননা ২০২০” প্রদান করা হয় উক্ত সরকারী অনুষ্ঠানে কৃষি মন্ত্রণালয় ও কৃষি তথ্য সার্ভিসের বিশেষ আমন্ত্রণে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদের ০৪ জন কেন্দ্রীয় নেতা সভাপতি বিভূতি ভূষণ সরকার, সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ মোঃ মুজাহিদ নোমানী, যুগ্ম মহাসচিব মোঃ মামুনুর রশিদ এবং আইন ও আন্তজার্তিক বিষয়ক সম্পাদক মনিন্দ্র নাথ সিংহ যোগদান করেন।

তাছাড়া ” এআইপি  সম্মাননা ২০২০” প্রাপ্তদেরকে সেদিনই  বিকাল ৪.৩০ ঘটিকায় আ কা মু গিয়াসউদ্দিন মিল্কী-র সম্মেলন কক্ষে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদের পক্ষ হতে এক সংবর্ধনা প্রদান করা হয় যার সচিত্র প্রতিবেদন ঢাকার অনলাইন পত্রিকা ” মানবসংবাদ “এবং ময়মনসিংহের সর্বাধিক  জনপ্রিয় পুরাতন দৈনিক ” স্বদেশ সংবাদ”এ প্রকাশিত হয়।

তারই আলোকে গত ১৪ আগষ্ট’২০২২ তারিখে আ কা মু গিয়াসউদ্দিন মিল্কীর সম্মেলন কক্ষে বিকাল ৩.০০ টা হতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদ, বাংলাদেশ এর “বার্ষিক সাধারন সভা ২০২২” অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মোঃ হামিদুর রহমান, কৃষি মন্ত্রণালয়ের এপিএ পুলের সম্মানিত সদস্য ও প্রাক্তন মহাপরিচালক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের বর্তমান মহাপরিচালক মোঃ বেনজীর আলম এবং বাংলাদেশ ক্রপ প্রটেকশন এসোসিয়েশন এর চেয়ারম্যান মোঃ সাইদুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদ,বাংলাদেশ- এর সভাপতি বিভূতি ভূষণ সরকার।
এছাড়াও মঞ্চে আসন গ্রহণ করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এর সরেজমিন বিভাগের পরিচালক মোঃ হাবিবুর রহমান যিনি নিজেও  ১৪১০ বাং সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার অর্জন করেছিলেন। মঞ্চে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনষ্টিটিউট এর মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোঃ ওমর ফারুক, পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি, কৃষিবিদ সাংবাদিক, লেখক, উদ্ভাবক শেখ মোঃ মুজাহিদ নোমানী এবং বিশিষ্ট লেখক ও শতাধিক গ্রন্থ প্রণেতা সহ-সভাপতি মৃত্যুন্জয় রায়।

সারা বাংলাদেশের ০৮ টি বিভাগ হতে আগত কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ শতাধিক সম্মানিত সদস্যবৃন্দ স্বতঃস্ফূর্তভাবে পরিষদের ” বার্ষিক সাধারন সভা ২০২২” এ অংশগ্রহণ করেন।
প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ তাদের মূল্যবান বক্তব্যে বাংলাদেশের কৃষির অভূতপূর্ব উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখার জন্য ” বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদক”প্রাপ্তদেরকে বাংলাদেশের “শ্রেষ্ঠ সন্তান” হিসেবে অভিহিত করেন এবং পরিষদের দাখিলকৃত ১২ দফা প্রস্তাবের স্বপক্ষে জাতীয় প্রতিটি ক্ষেত্রে তাঁদেরকে যথাযোগ্য মর্যাদা ও সুবিধা প্রদানে কৃষি মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর সুপারিশ করার আশ্বাস প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সিনিয়র সহ-সভাপতি মৃত্যুন্জয় রায়। এরপর পরিষদের বিগত সময়ের কর্মকান্ড ও হিসাব প্রতিবেদন দাখিল করেন পরিষদের যুগ্ম মহাসচিব মোঃ মামুনুর রশিদ।
উপস্থিত সম্মানিত সদস্যগনের মধ্যে  আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মোঃ সিদ্দিকুর রহমান( কুল ময়েজ), মোঃ হাবিবুর রহমান( মাছ হাবিব), সিনিয়র সহ-সভাপতি বগুড়ার মোঃ আজমল হোসেন, নাটোরের এআইপি মোঃ সেলিম রেজা, সিলেটের আশীষ কুমার, নবাবগঞ্জ ঢাকার মায়ারাণী বাউল, নীলফামারীর আব্দুল আজিজ, ঠাকুরগাঁও এর এআইপি মোঃ  মেহেদী আহসান উল্লাহ চৌধুরী, নরসিংদীর সাদেকুন্নাহার শিউলি, মেহেরপুরের আব্দুল কাদের বেপারী(কলা কাদের), নোয়াখালীর মাসুদুল হক চৌধুরীসহ আরও অনেকে তাদের মনের আকুলতা, আগামীর কৃষি ও জননেত্রী শেখ হাসিনার সুখ-সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে কথা বলেন।
এরপর পরিষদের সভাপতি বিভূতি ভূষণ সরকার পুনঃগঠিত কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের নেতৃবৃন্দের নাম ও পুনঃবিন্যাসকৃত পদ ঘোষণা  করেন।

প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ তাঁদের বক্তব্যে ” বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদ,বাংলাদেশ-এর সম্মানিত সদস্যবৃন্দের আগামীর সকল প্রকার কর্মকান্ডে ও প্রস্তাবনাসমুহ বাস্তবায়নে সর্বাত্মক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি  প্রদান করেন।
এছাড়াও উল্লেখ্য যে, মঞ্চের ব্যানারের দুই পাশে সিনিয়র সহ-সভাপতি কৃষিবিদ শেখ মোঃ মুজাহিদ নোমানী কর্তৃক জাতিরজনকের বর্ণাঢ্যময় জীবনের উল্লেখযোগ্য ঘটনাসমুহ নিয়ে লেখা”এক মহানায়কের অমর কীর্তিগাঁথা…!” এবং বঙ্গবন্ধুর শাহাদত বরণের পর তাঁর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সাহসী নেতৃত্বে ও দক্ষ রাষ্ট্র পরিচালনায় সুখ-সমৃদ্ধ উন্নত এক বাংলাদেশ গড়ার অর্জন ও সাফল্য নিয়ে রচিত ” নতুন এক বাংলাদেশ” শীর্ষক কবিতার দু’টি ফেষ্টুন  বঙ্গবন্ধুুর প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের অন্যরকম এক  বহিঃপ্রকাশ অনুষ্ঠানটিকে আরও দৃষ্টিনন্দন ও মোহনীয় করে তোলে।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পদকপ্রাপ্ত পরিষদ,বাংলাদেশ-এর পক্ষ হতে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দগণকে শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে সুদৃশ্য ক্রেষ্ট প্রদান করেন সভাপতি ও সিনিয়র সহ-সভাপতিবৃন্দ।
সবশেষে  পরিষদের আপ্যায়নের সাথে সুদূর নালিতাবাড়ি উপজেলা, শেরপুর হতে মোঃ রফিকুল ইসলাম (ভুট্টা রফিক) কর্তৃক  আনীত তেল, লেবু, মরিচ পিয়াজ মিশ্রিত বিশেষ  ভুট্টা ভাজা বট গাছের পাতায় নারিকেলের পাতার বিশেষ চামচে পরিবেশন ছিল অন্যতম মজার একটি আকর্ষণ যা সকলেই পরিতৃপ্তি সহকারে গ্রহণ করেন।

পুরো অনুষ্ঠানটির ভিডিও ও স্থির চিত্রগ্রহণের এবং বিটিভির সংবাদে উপস্থাপনার দায়িত্ব পালন করেন কৃষি তথ্য সার্ভিসের কুশলী ক্যামেরাম্যান আবুল মোবারক সিদ্দিকী হোসেন এবং সহকারী ভিডিও ক্যামেরাম্যান মোঃ মামুনুর রশিদ।

বিকাল ৩.০০ টা হতে রাত ৮.৩০ টা পর্যন্ত অনুষ্ঠানটি প্রাণবন্ত এক মিলনমেলায় পরিণত হয়।
এই সফল অনুষ্ঠানের শুরু হতে শেষ পর্যন্ত চমৎকার ও মনোমুগ্ধকর সঞ্চালনায় ছিলেন উদ্ভিদ সংরক্ষণ বিভাগের অতিরিক্ত উপ পরিচালক( বালাইনাশক প্রশাসন) ও যুগ্ম মহাসচিব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এবং সুদূর কর্ণফুলী উপজেলা, চট্টগ্রাম হতে আগত সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা ও যুগ্ম মহাসচিব মোঃ মামুনুর রশিদ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে