বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে দেশের মাটি ও মানুষকে ভালোবাসতে শিখিয়ে গেছেন : প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী

রবিবার, আগস্ট ১৬, ২০২০,৩:৩৭ পূর্বাহ্ণ
0
4

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধু আজীবন বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন। মাত্র সাড়ে তিন বছরেই সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের উন্নয়নে অনেক কিছু করে গেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদেরকে দেশের মাটি ও মানুষকে ভালোবাসতে শিখিয়ে গেছেন। আমরা যদি তার আদর্শ ও চেতনা বাস্তবায়নে আত্মনিয়োগ করি তাহলেই তাঁর প্রতি প্রকৃত শ্রদ্ধা জানানো হবে।

মন্ত্রী গতকাল জাতীয় শোক দিবস এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী পালন উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবন ও কর্ম নিয়ে আয়োজিত অনলাইন আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।  সভার শুরুতে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম নিয়ে একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীনের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন লে. কর্নেল সাজ্জাদ আলী জহির, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের চেয়ারম্যান বেগম শামছুন নাহার, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক মোঃ সামসুল আলম, ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক মোঃ হামিদুর রহমান, বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সাইফুল হাসান বাদল, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ শহীদুল আলম, কাতারস্থ শ্রম কল্যাণ উইং এর কাউন্সেলর ড. মুহাম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

সভার অতিথি বক্তা ড. নাসরীন আহমদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে মেকি কোনো কিছু ছিল না। তিনি যা ভাবতেন তাই করতেন। বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য তিনি জীবনের অধিকাংশ সময় জেলে কাটিয়েছেন। কিন্তু বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রশ্নে আপস করেননি।

সভায় লে: কর্ণেল সাজ্জাদ আলী জহির বলেন, বঙ্গবন্ধু আমাদের একটি স্বাধীন দেশ দিয়ে গেছেন। আর দিয়ে গেছেন তাঁর কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তাঁর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার জন্য তথা দেশের উন্নয়নের জন্য। তিনি বক্তৃতায় অন্যায়ের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর অমিত সাহসিকতার কথা উল্লেখ করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে