ফ্রান্সে মহানবীর (সা.) ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে তাড়াইলে বিক্ষোভ মিছিল

সোমবার, নভেম্বর ২, ২০২০,৭:৩০ অপরাহ্ণ
0
25

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আল-মামুন খান, তাড়াইল (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি: ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি পালন করেছেন কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার ইমাম-ওলামা ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শত শত শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের জনগণ। 

জানা যায়, সোমবার (২ নভেম্বর) তাড়াইল সাচাইল দারুল হুদা কাছেমুল উলুম মাদরাসার মহাপরিচালক এবং বিক্ষোভ মিছিলের সভাপতি শায়খুল হাদিস আলহাজ্ব ফয়েজ উদ্দিন দা.বা. এর নেতৃত্বে উক্ত মাদরাসা মাঠ থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্স ও আশপাশের এলাকা গুড়িয়ে তাড়াইল সদর বাজার প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে মিলিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলের সভাপতি শায়খুল হাদিস আলহাজ্ব ফয়েজ উদ্দিন দা.বা বলেন, ফ্রান্সে সরকারের মদতে ইসলামকে অবমাননা করে রাসুল (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হয়েছে। এসময় আলেমরা বাংলাদেশ সরকারের কাছে কিছু দাবী তুলে ধরেন, ফ্রান্সের পণ্য বয়কট করতে হবে। ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে ফিরিয়ে আনতে হবে। বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে ফ্রান্সে ফিরিয়ে দিতে হবে। ফ্রান্সে বসবাসরত মুসলিমদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ অন্যান্য দাবী উত্তাপন করা হয়।

বক্তব্য রাখেন, সেকান্দরনগর জামিয়াতুস সুন্নাহ’র মুহতামিম মাওলানা ফখরুদ্দিন আহমাদ, আলহাজ্ব হাফেজ শিব্বির আহমাদ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম ভুঁইয়া শাহিন, তাড়াইল উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফরুজ আলম ঝিনুক, তাড়াইল উপজেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক সারোয়ার আলম ও উপজেলার ধলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মবিন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ‘ফ্রান্সে সরকারের প্রত্যক্ষ মদদে ইসলামকে অবমাননা করে রাসুল (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে আজ আমরা এখানে সমবেত হয়েছি। শুধু ফ্রান্সে নয়, বিশ্বের অনেকগুলো দেশে এ ধরনের কর্মকাণ্ড বেড়ে গেছে। আমরা সেই সব ঘটনার নিন্দা জানাই। একটি সেক্যুলার রাষ্ট্র সরাসরি কোনও ধর্মকে আঘাত করে কিছু করতে পারে না। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং সারাবিশ্বের মুসলমান দেশকে প্রতিবাদ জানানোর আহ্বান জানাচ্ছি। ফ্রান্সের শার্লি এবদো নামে একটি ম্যাগাজিন নবী করিম (সা.)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করেছে। বাক স্বাধীনতা এমনভাবে উপভোগ করতে হবে যাতে তা অন্য কোনও ধর্ম বা কারও ধর্মীয় বিশ্বাসকে আঘাত না করে। মুহাম্মদ (সা.)-কে মুসলমান জাতি তাদের নয়নের মনি কোটায় স্থান দিয়েছে। তাকে অমর্যাদা করে ফ্রান্সে যা করা হয়েছে আমরা তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।’

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে