ফুলবাড়ী সীমান্তে বিজিবি’র টহল জোড়দার

রবিবার, এপ্রিল ৫, ২০২০,২:১৮ অপরাহ্ণ
0
37

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম : করোনাভাইরাস মোকাবেলায় কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি সীমান্তে নজরদারী বাড়িয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি’র) জওয়ানরা।

বিজিবি ও সীমান্ত এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অবৈধভাবে ভারত থেকে কেউ যেন দেশে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য সতর্ক রয়েছে বিজিবি। পাশাপাশি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সীমান্তঘেঁষা গ্রামগুলোতে বিজিবির সদস্যরা সীমান্তবাসীদের মাঝে সামাজিক দৃরত্ব বজায় রেখে চলাফেরার পরামর্শ প্রদান করছে। সরকারি নির্দেশনা মেনে করোনা প্রতিরোধে সীমান্তে বিজিবির ২৪ ঘন্টা টহল অব্যাহত আছে। সীমান্তে বিজিবির কঠোর নজরদারির কারণে ভারতীয় গরুসহ সব ধরণের মালামাল বাংলাদেশে আসা একেবারে বন্ধ হয়ে গেছে।

ফুলবাড়ি উপজেলার ৩৬ কিলোমিটার সীমান্ত এলাকার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ গোরকমন্ডপ, বালাটারি, গজেরকুটি, জাগিরটারী, শিমুলবাড়ী, নন্দিরকুটি, জুম্মারপাড়, চাঁদের বাজার, নাখারজান, বিদ্যাবাগিস, ঠোস বিদ্যাবাগিস, গংগারহাট, আজোয়াটারী, কাশিয়াবাড়ী, অনন্তপুর, উত্তর অনন্তপুরে বিজিবি’র টহল জোরদার করা হয়েছে।

ফুলবাড়ী উপজেলার খালিসাকোটাল গ্রামের বাসিন্দা ও ইউপি সদস্য এরশাদুল হক জানান, বিজিবি সীমান্তে কঠোভাবে নজরদারি করছে, ফলে গরু চোরাচালান বন্ধ হয়ে গেছে। এছাড়াও ভারত বা বাংলাদেশের কোন নাগরিক সীমান্ত অতিক্রম করে পারাপার করছে না।

কাঁটাতারের বেড়ার বাইরে কিছু ভারতীয় নাগরিক গোপনে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী হাট-বাজারগুলোতে এসে বাজার করতো। বিএসএফের সঙ্গে আলোচনা করে তাদের বাংলাদেশে আসা বন্ধ করা হয়েছে। দু’একজন আসলেও তাদেরকে ফেরত দেয়া হয়েছে। এছাড়া দিল্লি, হরিয়ানা ও কেরালাসহ ভারতের বিভিন্ন এলাকায় বসবাসরত ফুলবাড়ী উপজেলার বেশ কিছু শ্রমিক যাতে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করতে না পারে তা কঠোরভাবে মনিটরিং করা হচ্ছে।

লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম তৌহিদ-উল-আলম জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সীমান্তে ২৪ ঘন্টা সতর্ক প্রহরায় নিয়োজিত রয়েছে বিজিবির সদস্যরা। সরকারি নির্দেশনা মেনে বিজিবি’র সদস্যরা সীমান্তে টহলের পাশাপশি করোনা মোকাবেলায় জনসচেতনামূলক প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। ক্যাম্পগুলোতে ব্যানার টাঙানো হয়েছে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে