প্রবাসীকর্মীদের সেবায় ঢাকায় বঙ্গবন্ধু ওয়েজ আর্নার্স সেন্টার উদ্বোধন

রবিবার, মার্চ ২০, ২০২২,২:২৬ অপরাহ্ণ
0
8

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে প্রবাসীকর্মীদের সেবায় ঢাকায় বঙ্গবন্ধু ওয়েজ আর্নার্স সেন্টার উদ্বোধন করেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ। 

মন্ত্রী গতকাল বিদেশগামী এবং বিদেশ থে‌কে ফেরত আসা কর্মীদের জন্য ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছেই বরুয়া লঞ্জনী পাড়ায় স্থাপিত বঙ্গবন্ধু ওয়েজ আর্নার্স সেন্টার উদ্বোধন করেছেন। এই সেন্টার তৈরি করেছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড। ১৪০ কাঠার বেশি জায়গায় নির্মিত সাময়িক এ আবাসস্থলে প্রবাসীরা রাতযাপন করতে পারবেন মাত্র ২০০ টাকায় । এ সেন্টা‌রে নারী ও পুরু‌ষদের জন‌্য আলাদা থাকার ব্যবস্থা র‌য়ে‌ছে। সেন্টার‌টি‌তে আপাতত ৪৯ জনের থাকার ব্যবস্থা করা হ‌য়ে‌ছে।

বঙ্গবন্ধু ওয়েজ আর্নার্স সেন্টার উদ্বোধন অনুষ্ঠা‌নে প্রবাসী কল‌্যাণমন্ত্রী ব‌লেন, সরকার সবসময় প্রবাসীদের পাশে রয়েছে। তাদের কল্যাণের কথা বিবেচনা করে সরকার এই সেন্টার স্থাপন করেছে। মন্ত্রী বলেন, কর্মীদের জন্য এখানে আপাতত একটি থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখানে অনেক কম মূল্যেই তারা থাকতে এবং খেতে পারবেন। এর মাধ্যমে প্রবাসী কর্মীদের অনেক কষ্ট লাঘব হবে। তিনি সংশ্লিষ্টদের এই সেন্টারের সেবার মান নিশ্চিত করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক মোঃ হামিদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালক শহীদুল আলম, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ জাহিদুল হক, আইএলও’র চীফ টেকনিক্যাল এডভাইজার লেটেশিয়া এইবেল বক্তব্য রাখেন।

বঙ্গবন্ধু ওয়েজ আর্নার্স সেন্টারে যেসব সু‌বিধা পা‌বেন প্রবাসীরা:

এক রাত থাকার জন্য প্রবাসী কর্মীদের খরচ হবে ২০০ টাকা। রয়েছে সাশ্রয়ী মূল্যে খাবারের ব্যবস্থা।  এখানে প্রবাসী কর্মীদের রিইন্টিগ্রেশন (পুনঃএকত্রীকরণ) এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বা করণীয় সম্পর্কে ব্রিফিং দেওয়া হবে। কর্মীদের জন্য সেন্টার থেকে বিমানবন্দরে যাতায়াতের জন্য পরিবহন সুবিধাসহ সেফ লকারে লাগেজসহ মূল্যবান মালামাল সংরক্ষণের ব্যবস্থা, টেলিফোন সুবিধা, ইন্টারনেট ব্যবস্থা, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ থাকছে। এছাড়া কর্মীদের জন্য কাউন্সেলিং ও মোটিভেশনের ব্যবস্থা, প্রাথমিক চিকিৎসাসহ প্রয়োজনে হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থাও থাকছে।

সেন্টারে থাক‌তে যা যা লাগ‌বে :

সেন্টারের আওতায় সুযোগ-সুবিধাগুলো পেতে বিদেশগামী ও ফেরত প্রবাসী কর্মীরা ১০০ টাকা ফি দিয়ে সরাসরি কিংবা অনলাইনে আবেদন করতে পার‌বেন। সেন্টা‌রে অবস্থানের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজ-পত্র, যেমন- পাসপোর্ট ও এয়ার টিকিট কপি, বহির্গমন ছাড়পত্র/মেম্বারশিপ সনদের কপিসহ সংশ্লিষ্ট কাগজ লাগ‌বে। একজন কর্মী একটি সিটের জন্য আবেদন করতে পারবেন। একজন প্রবাসী প্রতিবার সর্বোচ্চ দুই রাত অবস্থান করতে পার‌বেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে