প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন আজ

শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৯,৫:০০ পূর্বাহ্ণ
0
26
ফাইল ছবি

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন আজ। তিনি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ১৯৪৭ সালের এই দিনে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছার জ্যেষ্ঠ সন্তান শেখ হাসিনা। 

এদিকে শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে। এতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন, সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, দলটির উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ, তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ প্রমুখ দোয়া মাহফিলে ছিলেন। এছাড়াও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এবং ঢাকা মহানগরের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনা ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা-মায়ের প্রথম সন্তান শেখ হাসিনার ডাক নাম ছিলো হাসু। বর্তমানে ভাইবোনদের মধ্যে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা ছাড়া কেউই জীবিত নেই। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে তৎকালিন সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী সদস্যরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে গুলি করে হত্যা করে ।

১৯৮১ সালের ১৩-১৫ ফেব্রুয়ারি আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে শেখ হাসিনার অনুপস্থিতিতে তাকে দলের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। তিনি ওই বছরের ১৭ মে দেশে প্রত্যাবর্তন করেন দলের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর। এরপর দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে। বিগত ১/১১ এর পর ২০০৮ সালের নির্বাচনে জিতে ফের ক্ষমতায় আসে আওয়ামী লীগ। সেই থেকে বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা টানা তিন মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর পদে রয়েছেন।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন আজ। বর্ণাঢ্য জীবনে উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন টানা ৩৮ বছর ধরে। আর বিশ্বের সব থেকে বেশি সময় রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকা নারী রাজনীতিবিদের মাইলফলকও এখন তাঁর দখলে। গতিশীল উন্নয়ন-অগ্রগতির মাধ্যমে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ উন্নত দেশে পরিণত করতে বদ্ধপরিকর। বিশ্লেষকরা মনে করেন, প্রজ্ঞা, দূরদর্শিতা, বিচক্ষণতা আর সাহসী নেতৃত্ব গুণের কারণে দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে শেখ হাসিনা এখন নিজেকে আসীন করেছেন বিশ্ব নেতৃত্বের কাতারে।  

দেশভাগ আর উপমহাদেশের উত্তাল রাজনীতির ঘটনাবহুল সময়, ৪৭এর এই দিনে গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জন্ম নেন, তখনকার তরুণ রাজনীতিবিদ শেখ মুজিবের আদরের হাসু। পিতার সংগ্রামমুখর নেতৃত্বের প্রতিটি অধ্যায়ে নীরব সাক্ষী শেখ হাসিনা রাজনীতিতে জড়ান ছাত্রজীবনেই। আইয়ুবিরোধী আন্দোলন আর ছয় দফার সক্রিয় কর্মী শেখ হাসিনা নির্বাচিত হন ইডেন কলেজের ভিপি হিসেবেও।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে