প্রধানমন্ত্রীর প্রতি চারটি বিষয়ে জরুরী মনোযোগ আকর্ষণ ওয়ার্কার্স পার্টির

সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০,১২:১০ অপরাহ্ণ
0
21

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]


বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো নিম্নোক্ত চারটি বিষয়ের প্রতি প্রধানমন্ত্রী ও করনো ভাইরাস প্রতিরোধে নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি জরুরী মনোযোগ ও দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানিয়ে আজ ৩০ মার্চ ২০২০ নিম্নোক্ত বিবৃতি প্রদান করেছে-

(১) দেশে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে শ্রমিক ও শ্রমজীবি মানুষের সংখ্যা শতকরা ৮৫%। এরা তাদের আয়ের অর্থ দিয়ে নিজেরাই বাঁচে না। গ্রামীণ অর্থনীতিকেও সচল রাখে। এই অবস্থান রপ্তানী মুখী শিল্পে শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন-ভাতার জন্য ৫০০০ কোটি টাকার তহবিলের মত এসকল অপ্রাতিষ্ঠানিক শ্রমিক ও শ্রমজীবিদের জন্য আপৎকালীন বিশেষ তহবিল গঠন, জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে তা তাদের মাঝে দ্রুত বিতরণের ব্যবস্থা করা,

(২) স্বাস্থ্যমন্ত্রী যেভাবে বলেছেন তা ধরেই বলা যে কেউই করনো ভাইরাস রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি দেখাতে চায়না। কিন্তু দুভাগ্যজনক হলেও সত্য যে প্রথম থেকেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই শনাক্ত করণের বিষয়টি সর্বাপেক্ষা জোর ও তাগিদ দেয়া হলে বাংলাদেশে এখনও এই শনাক্তকরণ পরীক্ষার সংখ্যা কম। আমেরিকা ও ইতালীকে এরই খেসারত দিতে হয়েছে। বাংলাদেশে এখনও বহু করনো ভাইরাস রোগী শনাক্তকরণ ছাড়াই মৃত্যুবরণ করছে। ঔদিকে তাদের দাফন নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। একারণে এই শনাক্তকরণ প্রক্রিয়ায় প্রতিষ্ঠিত বেসরকারী ডায়গনিষ্টিক সেন্টার, বিএসএমএমইউসহ সরকারী ও বেসরকারী হাসপাতাল সমূহকে করনো ভাইরাস শনাক্ত করণের অনুমোদন দেয়া। তারা তাদের ফলাফল আইইডিসিআরকে এবং তাদের মাধ্যমে প্রকাশ করবে যাতে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ থাকে, একই ভাবে সরকারী ঘোষনা অনুযায়ী বাস্তবে ঢাকা ও ঢাকার বাইরে পরীক্ষা কার্যক্রমকে সক্ষম করা। এক্ষেত্রে কথা ও বাস্তবের ফারাক দুর করা,

(৩) করনো ভাইরাস পরীক্ষা কাজে ইপিডোমিলিজিষ্ট ভাইরোলজিস্ট ও মাইক্রোবায়োলজিষ্টদের সম্পৃক্ত করা এবং  সেভাবে জাতীয় কমিটি পুনবিন্যাস্ত করে তা প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি নেতৃত্বে নিয়ে আসা ও

(৪) রাজনৈতিক দলগুলোই জনমতের প্রতিনিধিত্বকারী। প্রশাসনের উপর নির্ভর না করে এই জাতীয় প্রতিরোধে সকল রাজনৈতিক দল, এমপি ও স্থানীয় জনপ্রতিদের সম্পৃক্ত করা, বিশেষকরে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষ গুলোকে বাঁচাতে তাদের মূল দায়িত্ব দেয়া। 


ওয়ার্কার্স পার্টির বিবৃতিতে আশা প্রকাশ করা হয় যে সবার সম্মিলিত প্রয়াসে করনো ভাইরাস সংক্রমণ আরও বিস্তৃত হবে না। তবে কোন কারণেই সতর্কতা বাদ দেয়া যাবেনা।  

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে