প্রতি বছর ১৮ অক্টোবর জাতীয়ভাবে পালিত হবে শেখ রাসেল দিবস

মঙ্গলবার, আগস্ট ২৪, ২০২১,১২:২২ পূর্বাহ্ণ
0
6

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

‘শেখ রাসেল দিবস’ ‘ক’ শ্রেণিভুক্ত দিবস হিসেবে ঘোষিত হয়েছে। প্রতিবছর ১৮ অক্টোবর দিবসটি জাতীয় ভাবে পালিত ও উদযাপিত হবে। মন্ত্রিপরিষদের নিয়মিত বৈঠকে এ সংক্রান্ত প্রস্তাবনার অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ‘শেখ রাসেল দিবস’ পালনের প্রস্তাব মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে পেশ করেন এবং এর যৌক্তিকতা তুলে ধরেন। এরই প্রেক্ষিতে সর্বসম্মতিক্রমে মন্ত্রিপরিষদ প্রস্তাবটি অনুমোদন করে।

১৮ অক্টোবরকে ‘শেখ রাসেল দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করায় আইসিটি প্রতিমন্ত্রী আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে মন্ত্রিপরিষদ সদস্যগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, এখন থেকে প্রতিবছর ১৮ অক্টোবর ‘শেখ রাসেল দিবস’ জাতীয়ভাবে পালিত হবে; যা আগামী দিনের শিশুদের জন্য একটি অনুপ্রেরণার প্রতীক হয়ে থাকবে। জাতীয় জীবনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও প্রকৃত ইতিহাস জানার সুদূরপ্রসারী সুযোগ এনে দিবে।

উল্লেখ্য, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সর্বকনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল  ১৮ অক্টোবর, ১৯৬৪ সালে জন্ম গ্রহণ করেন। পাঁচ ভাই-বোনের মধ্যে রাসেল ছিলেন সর্বকনিষ্ঠ। তিনি ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুল ও কলেজের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এবং শিশু পুত্র  শেখ রাসেলসহ  বঙ্গবন্ধু  পরিবারের ১৮ জনকে নির্মমভাবে হত্যা করে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে