পর্যটকের আগমনে নতুন রুপে সেজেছে তাড়াইলের হিজলজানি

শুক্রবার, আগস্ট ২৮, ২০২০,১০:৩২ পূর্বাহ্ণ
0
30

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আল-মামুন খান,তাড়াইল (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার পূর্ব জাওয়ার মিনি কক্সবাজার হিসেবে খ্যাত হিজলজানিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শত শত পর্যটকদের আগমন ঘটছে।

পর্যটকদের আগমনে মূখরিত হয়ে উঠেছে এই অঘোষিত পর্যটন কেন্দ্রটি। ডুবু ডুবু ভাসমান রাস্তার উপর কোথাও হাটু পানি, কোথাও কোমর পানিতে পর্যটকরা আনন্দে হৈ হুল্লুর, উল্লাস করছে।

পূর্ব দিকে ইটনা, পশ্চিম-দক্ষিনে তাড়াইল, উত্তরে নেত্রকোনার হাওড়ের অংশ মিলে এক অভূতপূর্ব জলরাশি হিজলজানিতে সৃষ্টি হয়েছে এক স্বর্গরাজ্য। এখানে নেই কোনো রেস্ট হাউজ, নেই পয়ঃনিস্কাশনের সু-ব্যবস্থা তবু দলে দলে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসছে শত শত পর্যটক।

তবে পয়ঃনিস্কাশন ব্যবস্থা না থাকলেও হিজলজানির প্রবেশ মূখে রয়েছে কিছু বাড়ি-ঘর। এসব বাড়ি ঘরের মানুষ পর্যটকদের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে থাকে।প্রতিদিন সকাল থেকে পর্যটকের আগমন ঘটে এবং সন্ধ্যা পর্যন্ত তারা হিজলজানিতে অবস্থান করে।

একজন পর্যটক জানান, আমরা প্রতি বছর হিজলজানি আসি। কারণ জায়গাটি অনেক নিরাপদ। এলাকার লোকজনও ভালো। 

একজন দোকানদার জানান, বেশি পানি হওয়ার কারণে কয়েক দিন আগে পর্যটক কম ছিল। এখন অনেক লোক আসছে। দোকানেও বিক্রি বাড়ছে।

এলাকাবাসীর দাবি, হিজলজানির সিজনাল এই জলরাশি দেখতে আসা পর্যটকদের জন্য একটি গণশৌচাগার এবং একটি রেস্ট হাউজ করা জরুরি প্রয়োজন।

তাহলে পর্যটকের আগমন আরও বাড়বে। এলাকার মানুষেরও আয় রোজকারের ব্যবস্থা হবে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে