পরিবেশপ্রেমী সংগঠনের সাথে রোটারেক্ট ক্লাব অব ঢাকা প্যাসিফিকের পরিবেশ দিবস পালন

মঙ্গলবার, জুন ৬, ২০২৩,১২:৫৫ পূর্বাহ্ণ
0
25

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা করতে গতকাল সোমবার বিশ্ব পরিবেশ দিবসে গ্লোবাল ল’ থিঙ্কারস সোসাইটি এর আয়োজনে ‘Gen4Trees’ [Generation for Trees’/জেনারেশন ফর ট্রিস’ -বৃক্ষরোপন প্রজন্ম ] নামে ঢাকার জাতীয় চিড়িয়াখানায় বৃক্ষরোপণ অভিযান উদ্বোধন করা হয় এবং পরিবেশকে প্লাস্টিক মুক্তকরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়I

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনঃ শরীফ জামিল সাধারণ সম্পাদক,বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন, ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম তালুকদার পরিচালক, বাংলাদেশ জাতীয় চিড়িয়াখানা, রাওমান স্মিতা সভাপতি, গ্লোবাল ল’ থিংকার্স সোসাইটি।
উক্ত উদ্ধোধন অনুষ্ঠানটি ঢাকার জাতীয় চিড়িয়াখানায় বৃক্ষরোপণ এবং চিড়িয়াখানা এলাকায় প্লাস্টিক বর্জ্য মুক্ত করণের মাধ্যমে শুরু হয়।

এ সময় কর্মসূচিতে উপস্থিত অতিথিরা দেশের জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে জনজীবনে প্রভাব নিয়ে বক্তব্য দেয় ও সচেতনতার বিষয়টি তুলে ধরে। সভায় উপস্থিত বাপা এর সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিল বলেন , আমরা যদি এখনই সচেতন না হই, তবে অদূর ভবিষ্যতে আমরা যে পরিস্হিতির শিকার হবো, তার জন্য দ্বায়ী একমাত্র আমরাই হবো ৷ তাই আমাদের নিজেদের পরিবর্তন দরকার। চিড়িয়াখানার পরিচালক ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন – আগামী প্রজন্ম বাঁচাতে গাছের বিকল্প নেই। আমরা প্রতি নিয়ত চেষ্টা করছি যাতে করে চিড়িয়াখানার ভেতরে এবং আশেপাশে প্লাস্টিক সহ সকল প্রকার দূষণ কমানো যায়। আশা রাখি জিএলটিএসের আজকের আয়োজন মানুষদের সচেতন করবে।

গ্লোবাল ল’ থিংকার্স সোসাইটির সভাপতি রাওমান স্মিতা বলেন, পরিবেশ দিবসের দিন এই বৃক্ষরোপণ অভিযান আমরা শুরু করলাম, এই অভিযান দিয়েই আমরা ২০৩০ সালের মধ্যে ১ কোটি গাছ লাগানোর লক্ষ্য পূরণ করবো। আমি মনে করি, জলবায়ু পরিবর্তনের এই সমস্যা মোকাবেলার যুদ্ধে এই বৃক্ষরোপণ একটু হলেও ভূমিকা রাখবে, তারই ফল হিসেবে আমরা Gen4Trees নামে বৃক্ষরোপণ অভিযান শুরু করলাম ।

রোটারেক্ট ক্লাব অব ঢাকা প্যাসিফিকের সভাপতি সাঈদ আল সাবা বলেন, আমরা পরিবেশ নিয়ে বড় হই, পরিবেশকেও পরিবারের একটি অংশ হিসেবে ভেবে পরবর্তী প্রজন্মদের কিছু করে যেতে হবে।

জিএলটিএসের নির্বাহী সদস্য শামস খান বলেন , আমাদের পরিবেশ নিয়ে অনেক কিছু জানার আছে, যা আমরা একত্রিত হয়ে শিখতে চাই ও আমাদের আশেপাশের তরুণদের শিখাতে চাই।

গ্রীণ ইউনাইটেড ন্যাশনসের সহ উদ্যেক্তা মাহির দাইয়ান বলেন, ‘আমাদের পরিবেশকে সবুজ রাখতে ও দূষণের পরিমাণ কমিয়ে আনতে সবাইকে সচেতন করতে হবে,সেইজন্য আমাদের বেশি বেশি গাছ লাগাতে হবে, সেই শুরুটা আমরা এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়েই করতে চাই। চিড়িয়াখানা ও তার আশেপাশের এলাকায় প্লাস্টিমুক্ত অভিযান চালানো হয় , যেখানে রোটারেক্ট ক্লাব অব ঢাকা প্যাসিফিক (রোটারী ক্লাব অব ঢাকা ডাউনটাউন), জিএলটিএস, ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ,প্লাস্টিক রেঞ্জারস, গ্রিন ইউনাইটেড নেসন্স,এর পরিবেশকর্মীরা অংশগ্রহণ করে। আশেপাশের মানুষদের প্লাস্টিক এর নানা খারাপ দিক তুলে ধরে এবং সর্বশেষে চিড়িয়াখানা কতৃপক্ষের কাছে গাছ তুলে দেওয়া হয় এই অনুষ্ঠানটি শেষ করে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে