পরিচালনায় তার ভালোবাসার ছোঁয়া

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১,৯:৩৮ অপরাহ্ণ
0
33

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

ইমতিয়াজ রবিন : জীবনের দীর্ঘ সময় পার করেছে প্রধান সহকারী পরিচালক হিসেবে। কাজ করেছেন বাংলাদেশের স্বনামধন্য সব পরিচালকদের সাথে। জুয়েল মাহমুদ, মেহেদী হাসান টিংকু, নজরুল ইসলাম রাজু, নিয়াজ মাহবুব, মোহাম্মদ জুয়েল রানা ও জনপ্রিয় নাটক যমজের পরিচালক আজাদ কালামপ্রমুখ সব ব্যক্তিদের সাথে। এটিএন বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক ডিবি ছিল তার শেষ কাজ যার পরিচালক ছিলেন জাহাঙ্গির আলম সুমন।  

হঠাৎ করে জীবন ও জীবিকার তাগিদে পরিবারের ইচ্ছায় কিছুটা বিরতি মিডিয়া পাড়া থেকে। হয়তো কাছের মানুষদের সাথে আড্ডা হয়নি একসাথে। গল্প নিয়ে, কাজ নিয়ে আলোচনা করা হয়নি কিন্তু যোগাযোগটা ছিল। অনেকেই ভেবেছিল মিডিয়া থেকে বিদায় নিয়েছে। ভালো কিছুর অপেক্ষায় ছিল। তাই বিরতি শেষ করে আবার ভালো কিছু দিয়ে শুরু করে মিডিয়ায় পথ চলা। তবে এবার আর সহকারী হিসেবে নয়। প্রথম বারের মত নাটক পরিচালনা করার যুদ্ধটা শুরু করে দেয়। অনেকটা সময়ের পরে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রাপ্ত পরিচালক মুরাদ পারভেজের একটি গল্প নিয়ে যাত্রা শুরু করল।

বলছিলাম পরিচালক এস. এম. এ. পারভেজের মিডিয়া জীবনের গল্প। তবে পরিচালক তার মতামত জানিয়ে বলেছেন- ”আমি আমার ছাত্র জীবন থেকে মিডিয়ায় কাজ করে যাচ্ছি। তাই এই জায়াগাটা আমার ভালোলাগার জায়গা। নতুন কিছু তৈরিতে ভালো লাগে। নতুন কিছু তৈরি করাটা আমার কাছে নেশার মত। আমি আমার ভাই বন্ধু শুভাকাঙ্খীদের জন্য ভালো ভালো কাজ করতে চাই। ভালো কিছু কাজ তাদেরকে উপহার দিতে চাই। যদিও ভালো কাজ করার জন্য অনেক প্রতিবন্ধকতা থাকে। আমি চেষ্টা করবো এই সব প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে সুন্দর কিছু উপহার দেয়ার জন্য।“

‘প্রত্ননারী’ তেমনি সুন্দর একটি রোমান্টিক গল্প। যেই গল্প দিয়ে পরিচালক মিডিয়ায় ফিরে এসেছেন। এতে অভিনয় করেছেন সজল, প্রভা, সঞ্চিতা দত্ত, তাসনিম তাসফি এবং আরও অনেকে। নাটকটির গল্প একটু ভিন্নরকম ভালোবাসা নিয়ে। দর্শকরা ভালো কিছু দেখার অপেক্ষায় থাকল।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে