নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত হলো ‘NSTU SOFTBOX’

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১,১০:৩৪ অপরাহ্ণ
0
8

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি : প্রতিষ্ঠার ১৬ তম বছরে এসে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পাচ্ছেন প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল। এর আগে শুধুমাত্র মাস্টার্সে অধ্যায়নরত স্বল্পসংখ্যক গবেষক শিক্ষার্থীকে ওয়েবমেইল সার্ভিসের মাধ্যমে ইমেইল সেবা প্রদান করা হতো।
২০২১ সাল থেকে নোবিপ্রবি সাইবার সেন্টার, বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের জন্যে  উন্মুক্ত করেছে  ‘NSTU SOFTBOX’ নামে একটি কমপ্লিট এডুকেশন প্যাকেজ যা গুগল এর সহায়তায় চালিত হয়। এর আওতায় প্রতি শিক্ষার্থী পাচ্ছেন একটি প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল একাউন্ট, আনলিমিটেড গুগল ড্রাইভ স্টোরেজ, ক্লোজড ক্যাম্পাস গুগল ক্লাসরুমসহ গুগলের অন্যান্য প্রিমিয়াম সুবিধাসমূহ।

আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের মধ্যে থেকে এ পর্যন্ত ১০০০ এর বেশি শিক্ষার্থীকে একাউন্ট প্রদান করা হয়েছে এবং বাকীদেরকে এ মাসের মধ্যেই এ সুবিধার আওতায় নিয়ে আসা হবে। একজন একাউন্টধারীকে ৩ ধাপের ভেরিফিকেশন শেষে তাদের শ্রেণী প্রতিনিধির মাধ্যমে সাইবার সেন্টারের কাছ থেকে তার লগইন ক্রেডেনশিয়াল বুঝে নিতে হচ্ছে।

একটি ইউনিফর্ম নিয়ম মেনে সকল শিক্ষার্থীর ইমেইল একাউন্ট ক্রিয়েট করা হয়েছে। ধরা যাক, বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ১৫ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী, Jashim Rana. নোবিপ্রবির প্রতিটি বিভাগের জন্য একটি নির্দিষ্ট ইউনিক কোড রয়েছে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ম বিভাগ হিসেবে মাইক্রোবায়োলজির কোড ০৫। একাউন্টের গঠনে শিক্ষার্থীর ফার্স্ট নেম অথবা লাস্ট নেম, বিভাগের কোড এবং শিক্ষার্থীর ব্যাচ নম্বর রয়েছে। সেক্ষেত্রে, এই শিক্ষার্থীর একাউন্ট হতে পারে, jashim0515@student.nstu.edu.bd. ইমেইল একাউন্টের ইউজারনেম এভাবে করায়, শ্রুতি মধুর, সহজে স্মরণযোগ্য এবং শিক্ষার্থীর পরিচয় ফুটে উঠছে।

প্রথমবার সফলভাবে সাইনইন এবং অন্যান্য হাউসকিপিং বিষয়ে সংক্ষিপ্ত পরিসরে  ব্যবহারকারীদের জানানোর উদ্দেশ্যে সাইবার সেন্টার থেকে একাধিক ভিডিও  টিউটোরিয়াল ইউটিউবে আপলোড করা হয়েছে। সবার জন্যে পরিচ্ছন্ন যোগাযোগে এই সার্ভিস ব্যবহারকারীদের সাইবার সেন্টার প্রকাশিত ইমেইল এটিকেট ও গাইডলাইন ব্যবহারে প্রতিনিয়ত উৎসাহ দেয়া হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ দিদার-উল-আলম বলেন, একাডেমিয়াতে সুরক্ষিত স্মার্ট কমিউনিকেশন এর অপরিসীম গুরুত্ব রয়েছে। এই প্রোগ্রামটি চালু হওয়ার ফলে নোবিপ্রবির ভিতরে এবং বাইরে যোগাযোগে একটি সহজ, সুরক্ষিত, এবং ভেরিফাইড ইমেইল, ক্লাউড শেয়ারিং, ইন্টারঅ্যাকটিভ অনলাইন ক্লাস ও এ্যাসাইনমেন্ট সাবমিশনের একটি সুন্দর ব্যবস্থার সুযোগ হল। আমি বিশ্বাস করি, এই সুবিধার সুষ্ঠু ব্যবহারে শিক্ষকগণ তাদের ডিজিটাল শিক্ষা প্রদানে আরো বেশি স্বাচ্ছন্দ পাবেন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে শিক্ষার্থীদের সফলভাবে গড়ে তুলতে অবদান রাখবেন। তিনি এ ব্যাপারে অতি শীঘ্রই সকলের জন্য ওয়ার্কশপ আয়োজনের পরিকল্পনার কথা জানান।

নোবিপ্রবির প্রক্টর অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, নোবিপ্রবির শিক্ষা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থায় এই প্রোগ্রাম ‘র সংযুক্তি একটি অসাধারণ মাইলফলক। সকলকে এর সুষ্ঠু ব্যবহারের অনুরোধ জানিয়ে তিনি ইন্টারনেটে সকলের সতর্ক এবং সুরক্ষিত অবস্থান নিশ্চিতে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
এ ব্যাপারে সাইবার সেন্টারের ডিজিটাল কমিউনিকেশনস ইউনিটের ফোকাল পার্সন ড. ফাহদ হুসাইন বলেন, ইমেইল হচ্ছে একটি পাওয়ার যার সঠিক ব্যবহারে কোন জায়গায় অনুপস্থিত থেকেও নিজের সম্পর্কে পজিটিভ ধারণা সৃষ্টি করা যায়। তিনি আধুনিক যুগে কন্টিনিউইং এডুকেশন এবং সফল ক্যারিয়ার গড়তে ইমেইল এটিকেট জানা এবং ইমেইলে তা প্রয়োগ করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

নোবিপ্রবি সাইবার সেন্টার সফটবক্স ব্যবহারকারীদের জন্যে একটি ব্যবহার নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। উক্ত নীতিমালায় অবশ্য কর্তব্য এবং পরিত্যাজ্য বিষয় সমূহ সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়েছে। ইমেইল একাউন্টের নিরাপত্তা এবং ডেটা রিটেনশন পলিসি সম্পর্কেও এখানে উল্লেখ রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব এবং দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী বিশৃঙ্খলা এবং অপরাধ রোধে ব্যবহারকারীদের সচেতনতা সৃষ্টিতে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। এই সার্ভিসটি শুধুমাত্র বর্তমান শিক্ষার্থীদের জন্য প্রযোজ্য এবং একজন শিক্ষার্থী এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তার পাঠ চুকিয়ে যাওয়ার তিন মাসের মধ্যে অ্যাকাউন্টটি বন্ধ হয়ে যাবে।  
সাইবার সেন্টারের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মাহামুদুল হাসান বলেন, সাইবার সেন্টার নোবিপ্রবিকে একটি পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যাইয়ে পরিণত করার প্রয়াসে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এরই অংশ হচ্ছে শিক্ষার্থীদের ‘NSTU SOFTBOX’ এর সুবিধা প্রদান। তাছাড়া শীঘ্রই আমরা সকলের জন্যে পিসি অপারেটিং সিস্টেম, অফিস সফটওয়্যার, এবং প্রয়োজনীয় অ্যাক্যাডেমিক টুলস এর ব্যবস্থা করতে যাচ্ছি। শিক্ষার্থীদের ভেতর থেকে সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্টে অসাধারণ দক্ষতা অর্জনকারী কয়েকজন শিক্ষার্থীকে ফেলোশিপ প্রদানসহ সাইবার সেন্টারে ইন্টার্নশিপ করার সুযোগ দিতে যাচ্ছি, যার মাধ্যমে আমরা নিজেরাই নিজেদের প্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশনস ডেভলপ করতে সক্ষম হবে বলে আশা প্রকাশ  করছি।

উল্লেখ্য যে,  গত ২০ অক্টোবর, ২০২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ দিদার-উল-আলম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং বর্তমান শিক্ষার্থীদের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক ইমেইল সিস্টেম আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে