নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর বাণী

বৃহস্পতিবার, মে ২৮, ২০২০,১২:২০ অপরাহ্ণ
0
69

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস উপলক্ষে নিম্নোক্ত বাণী প্রদান করেছেন:

             “প্রতি বছরের মত এবারও ২৮ মে নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস পালিত হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানাই।

             এবারের প্রতিপাদ্য ‘করোনার কালে ঘরে থাকি, মা ও শিশুকে নিরাপদ রাখি’ অত্যন্ত সময়োপয়োগী হয়েছে বলে আমি মনে করি।

             বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে বাংলাদেশে মাতৃ ও শিশু স্বাস্থ্যখাতে দৃশ্যমান উন্নতি হয়েছে। দেশে বর্তমানে মাতৃমৃত্যু, নবজাতক ও শিশুমৃত্যু ব্যাপক হারে হ্রাস পেয়েছে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি)অর্জনের মাধ্যমে মাতৃমৃত্যু হার ২০৩০ সালের মধ্যে প্রতি লক্ষ জীবিত জন্মে ৭০ এর নীচে এবং নবজাতক মৃত্যুহার প্রতি হাজার জীবিত জন্মে ১২তে নামিয়ে আনতে ৪র্থ স্বাস্থ্য, জনসংখ্যা ও পুষ্টি কর্মসূচি (২০১৭-২০২২) বাস্তবায়ন করা হচ্ছে এবং এরই মধ্যে বাংলাদেশ জাতীয় মাতৃস্বাস্থ্য কৌশলপত্র (২০১৯-২০৩০) অনুমোদিত হয়েছে এবং বাস্তবায়নের পর্যায়ে রয়েছে।

             আমাদের সরকার প্রসবপূর্ব, প্রসবকালীন, প্রসবোত্তর সেবা ও নবজাতকের পরিচর্যার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে নতুন হাসপাতাল নির্মাণ, চিকিৎসক, নার্স, মিডওয়াইফসহ অন্যান্য জনবল নিয়োগ দেয়া হয়েছে। কোভিড-১৯ জনিত দুর্যোগ মোকাবিলায় আমাদের সরকার বিশেষ ব্যবস্থায় দুই হাজার ডাক্তার ও ৫ হাজার ৫৪ জন নার্স নিয়োগ দিয়েছে। স্বল্পতম সময়ে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও সুরক্ষা সরঞ্জামাদি নিশ্চিত করা হয়েছে। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে নিরলসভাবে কর্মরত স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সকল কর্মকর্তা, চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

             আমি আশা করি, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় জাতি অচিরেই এই দুর্যোগকালীন পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠবে এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে দ্রুত এগিয়ে যাবে।

 আমি নিরাপদ মাতৃত্ব দিবস ২০২০ এর সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করছি।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধ

বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।”

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে