না ফেরার দেশে রুমা গুহ ঠাকুরতা

সোমবার, জুন ৩, ২০১৯,১২:৩০ অপরাহ্ণ
0
43

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

রুমা গুহ ঠাকুরতা মারা গেছেন । কালজয়ী সঙ্গীতশিল্পী কিশোর কুমারের প্রথম স্ত্রী তিনি । তবে তাঁর পরিচয় থেমে থাকেনি কিশোর কুমারের স্ত্রী হিসেবেই । কিশোর কুমারের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয় ১৯৫১ সালে । একাধারে অভিনেতা ও সঙ্গীতশিল্পী কিশোর কুমারের মতো তিনিও ।

ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যারের কথা মাথায় আসে তাঁর নাম শুনলেই । ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যারের হাত ধরেই বাংলায় গণসঙ্গীত জনপ্রিয়তা লাভ করে । ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যারের প্রতিষ্ঠা করেন রুমা ১৯৫৮ সালে সুরকার সলীল চৌধুরী ও চিত্র পরিচালক, সাহিত্যিক সত্যজিৎ রায়ের সঙ্গে একত্রে । কিশোর কুমারের সঙ্গে তাঁর বিবাহ বিচ্ছেদের সে বছরই । শিবদাস বন্দোপাধ্যায়ের লেখা ভি বালসরার সুরে ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যারের ‘আজ যত যুদ্ধবাজ’ গানটি ব্যাপক জনপ্রিয় হয়। রুমা গুহ ঠাকুরতার পরিচালিত ২০ সদস্যের ক্যালকাটা ইয়ুথ কয়্যার কোপেনহেগেন ইউথ ফেস্টিভেলে হাজার হাজার শ্রোতা ও বিচারকদের মন জয় করে নেয় ১৯৭৪ সালে । জিতে নেয় প্রথম পুরস্কার।

তাঁর অভিনয়ে মুগ্ধ হয়েছেন অসংখ্য দর্শক বাংলা চলচ্চিত্রেও । বাঙালি দর্শকের মনে চিরস্থায়ী জায়গা করে নিয়েছে ৮০তে আসিও না, অভিযান, গণশত্রুর মতো একাধিক জনপ্রিয় ছবিতে তাঁর অভিনয় । অভিনয়ের জন্য প্রশংসাও কুড়িয়েছেন তিনি সত্যজিৎ রায়, তপন সিংহ, তরুণ মজুমদারের মতো বাঘা বাঘা চিত্র পরিচালকদের থেকে । একাধিক ছবিতে দেবব্রত বিশ্বাসের ছাত্রী রুমা প্লে ব্যাক করেছেন। ৮০তে আসিও না, বাঘিনী, অমৃত কুম্ভের সন্ধানে, পলাতক-এর মতো একাধিক ছবিতে প্লে ব্যাক করেছেন তিনি। রুমা শুধু বাংলাতেই নয়, আফসর, মশাল-এর মতো বেশ কয়েকটি হিন্দি ছবিতেও অভিনয়ের জন্য দর্শক, পরিচালক ও চিত্র সমালোচকদের থেকে যথেষ্ট প্রশংসাও কুড়িয়েছেন । ২০০৬ সালে তাঁর অভিনীত শেষ ছবি মীরা নায়ার পরিচালিত ‘দ্য নেমসেক’ মুক্তি পায় ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে