দেশের একমাত্র স্মার্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম প্রতিষ্টান হিসেবে আত্মপ্রকাশ করলো চসিক

সোমবার, মার্চ ২, ২০২০,৬:৫৩ পূর্বাহ্ণ
0
22
ডিজিটাল ড্যাশ বোর্ড উদ্বোধন কালে সিটি মেয়র

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

গতকাল রবিবার সকালে টাইগারপাস সিটি কর্পোরেশন কার্যালয়ে স্মার্টড্যাশ বোর্ড ও ওয়েব পোর্টাল এবং ওয়েব রিপোর্টিং টুলস উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের(চসিক) মেয়র আলহাজ: আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন।

এই সময় উপস্থিত ছিলেন চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুদ্দোহা, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্ণেল সোহেল আহমেদ, সচিব আবু শাহেদ চৌধুরী, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. মফিদুল আলম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আফিয়া আকতার, স্পেশাল ম্যাজিষ্ট্রেট জাহানারা ফেরদৌস, মেয়রের একান্ত সচিব মো. আবুল হাশেম, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ এ কে এম রেজাউল করিম, সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুর আহমেদ, শেখ তজিবুল ইসলাম, স্পেক্ট্রাম ইঞ্জিনিয়ারিং কনসোরটিয়ামের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও বিএএসআইএস এর চেয়ারম্যান মুশফিকুর রহমান।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আইটি অফিসার ইকবাল হাসান। এই স্মাটড্যাশ বোর্ড এবং ওয়েব রিপোর্টিং সিস্টেম এর মাধ্যমে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রত্যেক বিভাগের কর্ম পরিধি চলে আসছে স্মার্ট সিস্টেমের আওতায়। ফলে হাতের মুঠোয় চলে আসবে চসিকের শিক্ষা,স্বাস্থ্য,পরিচ্ছন্ন,প্রকৌশল,সচিবালয়,হিসাব ও রাজস্ব বিভাগের হিসাব নিকাশ। এতে সময় বাঁচবে,প্রক্রিয়া হবে সহজ থেকে সহজতর। এছাড়া নিশ্চিত হবে স্বচ্ছতা। এই প্রক্রিয়ায় প্রতিটি বিভাগকে দিনের কাজ শেষে ওয়েব রিপোটির্ং করতে হবে। ফলে প্রতিদিনের সবকটি কাজের তথ্য উপস্থাপিত হবে ডিজিটাল ড্যাশবোর্ডে। এতে সিটি মেয়রসহ চসিক উদ্ধর্তন কর্মকর্তাগন যেখানেই থাকুন, হাতে থাকা মুঠোফোন থেকে পুরো সিটি কর্পোরেশনের যাবতীয় তথ্য দেখে নিতে পারবে। নগরবাসির সম্পৃক্ততা এবং পোর্টালটি ব্যবহারে আগ্রহী করার জন্য ইন্টারেক্টিভ ওয়েব পোর্টালে বিভিন্ন ধরণের তথ্য সন্নিবেশিত করা হচ্ছে।

এসব তথ্যের মধ্যে থাকছে নগরের বিভিন্ন বাজারে পন্যের মূল্যের তালিকা, বাস, ট্রেন, বিমান ইত্যাদির ভ্রমনসূচি,নামাজের সময়সূচী, চট্টগ্রাম বন্দরে অবস্থানরত সকল পণ্যবাহী জাহাজে আমদানীকৃত পণ্যের বিবরণ, আবহাওয়ার পূর্বাবাস, হাসপাতালসমূহ সেবাগ্রহণকারী রোগীরসংখ্যা, নগরে জন্ম গ্রহণকারীর সংখ্যা, নগরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক ও মোড়ে যানবাহন যানজটের ভিডিও চিত্র,ব্যবহারকারী কর্তৃক ধারনকৃত বিভিন্ন স্থানের স্থির চিত্র ওয়েব পোর্টালে আপলোড করার ব্যবস্থা। এছাড়া আরো থাকছে প্রতিদিনের সেরা ছবি নির্বাচন সহ নগরবাসির প্রয়োজনীয় সকল ধরনের তথ্য পোর্টালে যুক্ত করণ, প্রনীত ইন্টারেক্টিভ ওয়েব পোর্টালের মাধ্যমে নগরবাসী সরাসরি কর্মকর্তার সাথে আলাদা ভাবে চ্যাটকরা এবং পোর্টাল হতে সরাসরি নিবন্ধন করে অভিযোগ ও পরামর্শ প্রদান। এমনকি চট্টগ্রাম নগরে প্রথমবারের মত আগত যে কোনো মানুষের প্রয়োজনীয় সকল তথ্য যাতে একটি ঠিকানায় পেতে পারে বা চট্টগ্রাম নগর সর্ম্পকে সম্যকধারণ পেতে পারেন সেভাবেই এই পোর্টালটিকে তৈরী করা হচ্ছে।

উদ্বোধনকালে সিটি মেয়র বলেন মশার উপদ্রব,নগর জলাবদ্ধতা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নগরবাসি ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। নগরবাসির একমাত্র সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। নগরবাসির প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত এই প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার। তাই নগরবাসির যত অভিযোগ অনুযোগ এই প্রতিষ্ঠানের প্রতি। এই প্রসঙ্গে সিটি মেয়র বলেন নগরবাসির প্রত্যাশা অনেক। নগরকে একটি মেগাসিটি,স্মার্ট সিটি,পরিস্কার পরিচ্ছন্ন নির্মল শহর নগরবাসির প্রত্যাশা। সমর্থ্যের মধ্যে সেই প্রত্যাশা পূরণে চসিক নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তারপরে নগরবাসির শতভাগ প্রত্যাশা পূরণ করতে পাচ্ছে না চসিক। বলা যেতে পারে চসিকের সদিচ্ছা আছে,সক্ষমতা নেই। আর্থিক সক্ষমতা ছাড়া চসিক নগরবাসির শতভাগ প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ করার ঘোষনা দিয়েছিলেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনাকে সেইদিন অনেকে উপহাস করেছিল। ২০২০ সালে বাস্তবতায় হলো অফিস -আদালতসহ সবক্ষেত্রে ডিজিটাল বাংলাদেশ। এই স্মার্টড্যাশ বোর্ড এবং ওয়েব রিপোর্টিং সিস্টেম এর মাধ্যমে চসিক অনেকদূর এগিয়ে গেল বলে সিটি মেয়র উল্লেখ করেন।

এই প্রসঙ্গে সিটি মেয়র বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে চট্টগ্রামে অটোমেশন পদ্ধতি চালু করা হয়। এতে নগরবাসি ঘরে বসেই তাদের যাবতীয় ট্যাক্স অন-লাইনে পরিশোধ করতে পাচ্ছেন। এমনকি চসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা অন-লাইন তাদের সন্তানদের বেতনাদি অন-লাইনে জমাকরণে সুযোগ ভোগ করছে। তাই চসিকের আজকের বাস্তবতা হচ্ছে দেশের সেরা ডিজিটাল নগর ভবণ ও দেশের একমাত্র স্মার্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের প্রতিষ্টান হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আত্মপ্রকাশ করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে