ত্রাণ বিতরণে আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় জনজীবনে সংকট সৃষ্টি হয়েছে : মেনন

মঙ্গলবার, মে ১১, ২০২১,১১:৫০ অপরাহ্ণ
0
18

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন করোনা দুর্যোগ মোকাবেলায় আমলাতান্ত্রিক জটিলতা ও সিদ্ধান্তহীনতা জনজীবনে সংকট সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে নগর কেন্দ্রীক দরিদ্র মানুষের এক দিকে করোনা অতিমারি এবং জীবিকার প্রশ্নে ত্রাণের স্বল্পতা ও বিতরণে দীর্ঘসূত্রিতার কারণে জনজীবন গভীর সংকটে পড়েছে। সরকার তেলের মাথায় তেল দেয়, অপরদিকে ন্যাড়া মাথায় বারি দেয়। এতে করে সমাজে ক্ষোভ তৈরী হয়েছে। এই ক্ষোভ নিরসনে সরকারকে যথাযথ নিয়মনীতি মেনে চলে ত্বরিত প্রদক্ষেপ নিতে হবে। তা না হলে জনক্ষোভ বিক্ষোভে রূপ নিতে পারে। যা করোনা সংকট মোকাবেলা করতে দূরহ হয়ে পড়বে।

আজ ১১ মে ২০২১ বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগর কমিটির উদ্যোগে সপ্তাহব্যাপি নগর দরিদ্রের মধ্যে হকার, রিক্সা চালক, পরিবহণ শ্রমিক, গৃহশ্রমিক, বিদেশ ফেরত নারী শ্রমিক, কর্মচ্যুত গার্মেন্টস শ্রমিকের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। আজ বিকালে ৩টায় ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম সমাপ্তি ঘোষণায় ভিডিও কলে পার্টি কেন্দ্রীয় সভাপতি জননেতা রাশেদ খান মেনন এ কথা বলেন। পার্টি অফিস চত্বরে আয়োজিত ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহানগর কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড আবুল হোসাইন। অনুষ্ঠানে বক্তা রাখেন নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোর রায়, সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য কমরেড মোঃ তৌহিদ, নগর কমিটির সদস্য কমরেড সাদাকাত হোসেন খান বাবুল, কমরেড তাপস কুমার রায় প্রমুখ।

রাশেদ খান মেনন বলেন, আসন্ন এমপি ঈদ-উল ফিতরে নগরবাসী হুমরী খেয়ে গ্রামে না গিয়ে নিজ নিজ স্থানে বসবাস করে করোনা অতিমারি মোকাবেলায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে এবং সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। দেশবাসীর সহযোগিতায় সরকার করোনা মোকাবেলায় সাফস্য অর্জন করলেও দেশ এখনো ঝুকি মুক্ত নয়। তিনি আসন্ন নগরবাসীসহ দেশবাসীকে পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে