তাড়াইলের তালজাঙ্গায় ছেলের হাতে বাবা খুন

বৃহস্পতিবার, জুন ৯, ২০২২,১১:৩৮ অপরাহ্ণ
0
33

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আল-মামুন খান, নিজস্ব প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে পারিবারিক কলহের জেরে ছেলে দা দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করল জন্মদাতা পিতাকে। নিহত পিতার নাম মোঃ রবিউল ইসলাম (৫০)। বুধবার (৮ জুন) দিবাগত রাতে তাড়াইল উপজেলার তালজাঙ্গা ইউনিয়নের বান্দলদিয়া গ্রামে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে। এই ঘটনায় ঘাতক ছেলে  সোহাগ মিয়া (২২) কে গ্ৰেফতার করেছে তাড়াইল থানা পুলিশ। নিহত রবিউল ইসলাম পেশায় একজন রিকশাচালক ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে আনুমানিক ১:৩০ মিনিটে সোহাগ মিয়া ও তার মায়ের মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া শুরু হয়। এসময় ছেলে সোহাগ মিয়া মায়ের সাথে খারাপ আচরণ করতে থাকে। এতে তার বাবা রবিউল ইসলাম এসে বাঁধা দিলে তার উপর ক্ষিপ্ত হয় সোহাগ মিয়া। এক পর্যায়ে ঘরের ভেতর থাকা ধারালো দা দিয়ে বাবা রবিউল ইসলামকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে স্থানীয়রা পিতা-মাতার চিৎকার চেঁচামেচি শুনে ছুটে এসে গুরুত্বর আহত অবস্থায় রবিউল ইসলাম কে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে তাড়াইল থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘাতক সোহাগ মিয়াকে গ্ৰেফতার করে। সেই সাথে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দা জব্দ করেন তাড়াইল থানা পুলিশ।

এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে তাড়াইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন সরকার বলেন, পুলিশ খবর পেয়ে ঘাতক সোহাগ মিয়াকে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে গ্ৰেফতার করে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা জব্দ করা হয়েছে। পরবর্তীতে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে