ডিআরইউতে শেখ রাসেল আধুনিক ডিজিটাল ল্যাব গঠন করা হবে : আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১,১১:৪৭ পূর্বাহ্ণ
0
4

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেছেন, সাংবাদিকরা যেন নিজেদেরকে সাংবাদিকতার পাশাপাশি দক্ষ আইটি পেশাজীবি হিসেবে তৈরি করতে পারেন এ জন্য  ডিআরইউতে একটি শেখ রাসেল আধুনিক ডিজিটাল ল্যাব গঠন করা হবে। ২০টি ল্যাপটপ, মাল্টিমিডিয়া স্মার্টবোর্ডসহ পূর্ণাঙ্গ এই ল্যাব তৈরি করারও ঘোষণা দেন তিনি ।

প্রতিমন্ত্রী গতকাল রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে মিট দ্য রিপোর্টাস এরং ডিআরইউ অ্যাপস এর উদ্বোধনী  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিআরইউ সভাপতি মুরসালিন নোমানী। সঞ্চালক ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান খান।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি বাংলাদেশের একটি রোল মডেল সংগঠন উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক ভাইয়েরা যত সুন্দর করে বলতে এবং ওয়ার্কশপ আয়োজন করতে পারে সেটা অন্য কেউ এতোটা সুন্দর করে করতে পারে না। তিনি বলেন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি সফল ও সুশৃঙ্খল এবং অত্যন্ত স্মার্ট প্রতিষ্ঠান।

প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব ও তাঁর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের  তত্ত্বাবধানে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে ৪টি প্রধান স্তম্ভকে সামনে রেখে কাজ করেছে। তার নির্দেশনায় আইসিটি অবকাঠামো  গড়ে তোলার কারণে বিগত ১২ বছরের ব্যবধানের দেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৫৬ লাখ থেকে ১২ কোটিতে উন্নীত হয়েছে। ২৬ মিলিয়ন ডলার থেকে আইসিটি রপ্তানি বেড়ে  ১ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে।

পলক বলেন, দেশের ব্যাংকগুলোর মধ্যে প্রায় ৫০ শতাংশ সেবা বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ প্রতিষ্ঠান বা জনশক্তি দিচ্ছে। বাকিগুলো দেশের বাইরে থেকে নিচ্ছে। দেশে সাইবার নিরাপত্তা খাতে দক্ষ জনশক্তি তৈরিতে ডিজিটাল সিকিউরিটির এজেন্সির মাধ্যমে পরিকল্পিতভাবে কাজ করছে সরকার। দেশের বিভিন্ন সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ২৭টি ক্রিটিকাল ইনফ্রাস্ট্রাকচার (জনগুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো) চিহ্নিত করা হয়েছে। এসবকে মাথায় রেখে ডিজিটাল সিকিউরিটি এজেন্সি কাজ করছে।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, সাইবার নিরাপত্তা সচেতনতা মাস অক্টোবরকে উপলক্ষ্য করে দেশব্যাপী সচেতনতামূলক কর্মসূচির পরিকল্পনা করা হচ্ছে। কোনো একটি দিবস, সপ্তাহ বা মাসকে কেন্দ্র করে সচেতনতামূলক কর্মসূচি নেয়া হলে সেটি বেশ কার্যকর হয়। সেই দৃষ্টিভঙ্গি থেকে আমরা সচেতনতামূলক কর্মসূচিতে গুরুত্ব দিচ্ছি।

পরে প্রতিমন্ত্রী ‘ডিআরইউ অ্যাপস’ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে